অপেক্ষা বাড়লো লিভারপুলের

প্রকাশিত : ২২ জুন ২০২০

বল দখলে এগিয়ে থাকলে‌ও এভারটনকে হারাতে পারলো না লিভারপুল। গোল শূন্য ড্র করতে হলো তাদেরকে। তাতে শিরোপা উত্সবের অপেক্ষা আরো বাড়লো অল রেডদের।

তবে ড্র নয়, গুডিসন পার্কে জয়ই পেতে পারতো স্বাগতিক এভারটন। আর সেটি হতো ১০ বছর পর লিভারপুল ডার্বিতে তাদের প্রথম জয়। যদি না ৮০ মিনিটে টম ডেভিসের শট পোস্টের ভেতরের দিকে লেগেও ফিরে আসতো। আর লিভারপুল গোলকিপার আলিসন স্বদেশি ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রিচার্লিসনের শট ঠেকিয়ে দিতেন দারুণ নৈপুন্যে।

চোট কাটিয়ে খেলায় ফিরেই আলিসন দেখিয়ে দিলেন তার জাতটা। ম্যাচ শেষে লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ তার গোলকিপারকে নিয়ে ঝরিয়েছেন মুগ্ধতা, ‘অসাধারণ! এটাই হলো বিশ্বমানের গোলকিপারের কাজ। পুরো নব্বই মিনিটে তাকে খুব বেশি কিছু করতে হয়নি। তবে সে ছিল আর তাতেই আমরা একটা পয়েন্ট পেয়েছি। এমনটা যে প্রথমবার ঘটলো তা তো নয়!’

ড্র করে দুই পয়েন্ট হারানো মানে ট্রফিটা হাতে তুলতে আর পাঁচ পয়েন্ট লাগবে লিভারপুলের। বাকি আছে আট ম্যাচ। তবে অ্যানফিল্ডে ক্রিস্টাল প্যালেসের সঙ্গে বুধবারের ম্যাচটি জিতলেও লক্ষ্যপূরণ হতে পারে। তার আগে যদি সোমবার ইতিহাদে বার্নলিকে হারাতে ব্যর্থ হয় ম্যানচেস্টার সিটি।

পুরো ফিট না থাকায় ডার্বিতে খেলতে পারেননি স্ট্রাইকার মোহামেদ সালাহ আর লেফটব্যাক অ্যান্ডি রবার্টসন। দুজনের অভাবটা ভীষণভাবেই অনুভূত হয়েছে লিভারপুলের কাছে। ওদিকে পুরো ম্যাচ জুড়েই দুর্দান্ত খেলেছেন এভারটন অধিনায়ক ও রাইটব্যাক সিমাস কোলম্যান। ম্যান অব দ্য ম্যাচই হয়েছেন তিনি।

রবিবারের অন্য দুই ম্যাচে চেলসি ২-১ গোলে হারিয়েছে অ্যাস্টন ভিলাকে, নিউক্যাসল ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে শেফিল্ড ইউনাইটেডকে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের চেয়ে পাঁচ পয়েন্ট এগিয়ে চতুর্থ স্থানে বেশ জাঁকিয়ে বসলো চেলসি।

আপনার মতামত লিখুন :