ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে টসে মনোযোগ ডমিঙ্গোর

প্রকাশিত : ৮ জানুয়ারি ২০২২

ভোরের দর্পণ ডেস্ক:

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টর টস। এই মাঠে সবশেষ ১০ টেস্টে আগে ব্যাট করা দলগুলোর মধ্যে জয় পেয়েছে মাত্র একটি দল। তাইতো স্বাগতিকদের বিপক্ষে শেষ ম্যাচটিতে টস গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে মুমিনুল হকদের জন্য। এই মাঠে আগে ফিল্ডিং করতে চায় উভয় দলই। তবে পেসারদের উপর বিশ্বাস রেখে টস ভাগ্যের দিকে তাকিয়ে টাইগারদের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।

আজ শনিবার দ্বিতীয় টেস্টের আগে সংবাদ সম্মেলনে এসে এমনটাই জানিয়েছেন ডমিঙ্গো। তিনি বলেন, ‘টস অনেক গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। গত ১০ ম্যাচে মাত্র একটি ম্যাচ জিতেছে আগে ব্যাট করা দল। এখানে প্রথম ইনিংসে গড়ে ২৬০-২৭০ রান হয়। নতুন বল ব্যবহারের জন্য প্রথম দিন অনেক গুরুত্বপূর্ণ। নিউজিল্যান্ড টস জিতলে বোলিং করতে চাইবে, আমরাও চাইব।’

নিউজিল্যান্ডের উইকেট মানেই পেস বান্ধব। যদিও ক্রাইস্টচার্চের উইকেট অতিমাত্রায় পেস বান্ধব হয়ে থাকে। এখানকার পিচ অনেকখানি সবুজ থাকায় পেসাররা বাড়তি সুবিধা পেয়ে থাকে। সেই সুবিধা নিয়েই মাঠে নামতে যাচ্ছে কিউইরা। তবে বাংলাদেশের পেসারদের উপর আত্মবিশ্বাসী ডমিঙ্গো বলেন, ‘ডানেডিন, ওয়েলিংটন ও হ্যামিল্টনে গেলেও ক্রাইস্টচার্চে কোনো টেস্টের জন্য আমার আসাও হয়নি আগে। এই উইকেটে পেসাররা অনেক বেশি সুবিধা পায়। এটাও আমাদের সুবিধা দিবে।’

‘আমাদের কয়েকজন মানসম্পন্ন পেসার আছে। কিন্তু তারা এমন কন্ডিশনে বল করার সুযোগ খুব একটা পায় না। লম্বা স্পেলে বল করতে পারে না। উপমহাদেশের কন্ডিশন তাদের পক্ষে থাকে না। খুব কম সময়ই বাংলাদেশ ঘাসের উইকেটে সুবিধা নেওয়ার কথা ভাবতে পারে। আমাদের তিন পেসার অনেক উঁচু মানের, তারা আত্মবিশ্বাসী। শুরুতে বোলিং করতে পারলে আশা করি তাদের ঘায়েল করতে পারব,’ যোগ করেন তিনি।

কিউইদের মাটিতে টেস্ট জয় বাংলাদেশ ক্রিকেটের ভবিষ্যতের জন্য দারুণ সম্ভাবনাময়। সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চান ডমিঙ্গো। তিনি বলেন, ‘টেস্টে আমাদের আরও অনেকদূর যেতে হবে। ওয়ানডেতে আমরা প্রত্যেক দলের সাথেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারি। তবে ধারাবাহিক হতে হলে আরও অনেক দূর যেতে হবে। গত বছরে পারফরম্যান্সের উন্নতি হয়েছে।’

আপনার মতামত লিখুন :