বিপিএলের পুরানকে ভেবে দুশ্চিন্তায় পড়েছিলেন ওয়ার্নার

প্রকাশিত : ১০ অক্টোবর ২০২০

ভোরের দর্পণ অনলাইন:

ক্যারিবিয়ান বাঁহাতি ব্যাটসম্যান নিকোলাস পুরান মানে আগ্রাসী ব্যাটিং। অজি ক্রিকেটার ডেভিড ওয়ার্নার খুব ভালো করেই জানেন সেটি। ২০১৯ বিপিএলে সিলেট সিক্সার্সের হয়ে দুইজন খেলেছেন একই দলে। বিপিএলের কল্যাণে অধিনায়ক ওয়ার্নার খুব কাছ থেকে দেখেছেন পুরানকে। আইপিএলের সর্বশেষ ম্যাচেও আবার পুরান ঝড়ে হতভম্ব হয়ে গেছেন ওয়ার্নার। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে ঝড় তোলা ক্যারিবিয়ান এই ব্যাটসম্যানকে বিপিএলের সেই পুরান মনে করে নার্ভাস হয়ে গেছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের অধিনায়ক ওয়ার্নার।

২০১৯ বিপিএলে চোটের জন্য মাত্র সাত ম্যাচ খেলতে পেরেছেন ওয়ার্নার। এরমধ্যে ৫ ম্যাচেই দেখেছেন পুরান ঝড়। ক্যারিবিয়ান এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের ২৬ বলে ৪১, ৩২ বলে ৫২, ৪৭ বলে ৭২, ১৬ বলে ২৬, ২৭ বলে ৪৭* রানের ইনিংসগুলো ছিল বিধ্বংসী। সেই আসরে প্রায় ১৬০ স্ট্রাইক রেটে পুরান করেছিলেন ৩৭৯ রান। সাবেক সতীর্থ পুরান গতকাল ঝড় তুলেছিলো আবার, তবে এবার ওয়ার্নারের প্রতিপক্ষ হিসেবে।

আইপিএলে বৃহস্পতিবার সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে ২০২ রান তাড়া করতে নেমে পাঞ্জাবের এই ব্যাটসম্যান খেলেছেন ৩৭ বলে ৭৭ রানের ইনিংস। যেখানে ছয়ের মার ছিল ৭টি। ফিফটি ছুঁয়েছিলেন, মাত্র ১৭ বলে। এমনকি আবদুস সামাদের এক ওভারে তুলেছিলেন ২৮ রানও। কিন্তু পাঞ্জাবের বাকি ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় দলকে কাঙ্খিত জয় এনে দিতে পারেননি।

এক পর্যায়ে চাপে পড়ে রশিদ খানের বলে পয়েন্টে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন পুরান। সানরাইজার্সও ম্যাচটি জিতে নেয় ৬৯ রানে। তবে পুরান যতক্ষণ মাঠে ছিলেন, এক পর্যায়ে নার্ভাস হয়ে পড়েছিলেন তিনি।

সানরাইজার্স অধিনায়কের ভাষ্যে, ‘উপভোগ্য ম্যাচ ছিল। তবে চার ওভারের মতো বাকি থাকতে খানিকটা নার্ভাস হয়ে গিয়েছিলাম, যখন পুরান বল মাঠের বাইরে আছড়ে ফেলছিল। বাংলাদেশে (বিপিএলে) আমি তার সঙ্গে খেলেছি। সে যখন এভাবে ক্লিন হিট করা শুরু করে, তখন কঠিনভাবেই ভাবতে হয়।’

আপনার মতামত লিখুন :