মাঠে ফেরার ব্যাপারে বিসিবির নির্দেশনার অপেক্ষায় ডমিঙ্গো

প্রকাশিত : ১০ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনার প্রকোপ কমাতে বাংলাদেশ সরকারের তৈরি করা নিয়ম অনুযায়ী বিদেশ থেকে আসা কোনও ব্যক্তিকে ১৪ দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। গত ৬ সেপ্টেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে বাংলাদেশে এসেছেন প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। তাঁকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে কিনা এই ব্যাপারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে জানতে চেয়েছেন ডমিঙ্গো।

সামনেই শ্রীলঙ্কা সফর। তাই এই মুহূর্তে ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত অনুশীলনে দরকার আছে কোচেরও। সেক্ষেত্রে ডমিঙ্গো ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন পালন করবেন কিনা- এই ব্যাপারে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দ্বারস্থ হতে হচ্ছে বিসিবিকে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অনুমতি দিলেই কেবল টাইগারদের অনুশীলনে যোগ দিতে পারেন ডমিঙ্গো। ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক ও পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসনের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য। ৬ সেপ্টেম্বর ডমিঙ্গোর সঙ্গে একই ফ্লাইটে আসেন কুক। গিবসন বাংলাদেশে পৌঁছেছেন গত ৮ সেপ্টেম্বর। কোয়ারেন্টিনে থাকার বাধ্যবাধকতা আছে তাদেরও।

গত বুধবার পঞ্চম ধাপে শুরু হয়েছে মুশফিকুর রহিম-সৌম্য সরকারদের অনুশীলন। ডমিঙ্গো ডেইলি সানকে জানিয়েছেন, অনুশীলনের পঞ্চম পর্বের দ্বিতীয় দিনেই তিনি যোগ দেবেন কিনা- সেই ব্যাপারে বিসিবির কাছে জানতে চেয়েছেন তিনি।

জুলাই-আগস্টে শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের। যদিও করোনার কারণে সেটা পিছিয়ে সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে নেয়া হয়।

আপনার মতামত লিখুন :