প্রধান প্রকৌশলীর নিয়োগ চুক্তিভিত্তিক নয় পদোন্নতি চায় জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা

প্রকাশিত : ২৮ ডিসেম্বর ২০২২

এস এম বাবুল 
জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ না দিয়ে অধিদপ্তরে কর্মরত সিনিয়র প্রকৌশলীদের মধ্যে থেকে প্রধান প্রকৌশলী পদে পদোন্নতি দেয়ার দাবি জানিয়েছেন, অধিদপ্তরে কর্মরত সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

মঙ্গলবার (২৭ ডিসেম্বর) জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীগণ ও অধিদপ্তরের সাতটি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ ঠেকাতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামকে চিঠি দিয়েছেন।

চিঠিতে সই করেছেন, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী তুষার মোহন সাধু খা, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মীর আব্দুস সাহিদ, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. সরোয়ার হোসেন। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল সমিতির সভাপতি প্রকৌশলী মো. সাইফুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো. নজরুল ইসলাম মিয়া। এ ছাড়াও চিঠিতে সই করেছেন, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল ডিপ্লোমা প্রকৌশলী সমিতির সভাপতি মো. নুর নবী ও সাধারণ সম্পাদক মো. বাদশা মিয়া। বাংলাদেশ জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মো. কবির আহামদ মজুমদার ও সাধারণ সম্পাদক মো. কামাল হোসেন। বাংলাদেশ জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মো. তাহের মোল্যাহ ও সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল ওহাব। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বহুমূখী সমবায় সমিতি লিমিটেডের সম্পাদক মো. মোফাজ্জল হোসেন। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অফিস সহকারী সমিতির আহবায়ক মো. স্বপন মিয়া ও সদস্য সচিব মো. মিলন হোসেন। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর শাখার বাংলাদেশ সরকারি গাড়ী চালক সমিতির সভাপতি মো. জহিরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মো. আল আমিনুর রহমান।
এর আগে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ বন্ধে অতিরিক্ত প্রকৌশলীদের সাথে সাত সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের যৌথ সভা গত ১৩ ডিমেম্বর ২০২২ (মঙ্গলবার) অনুষ্ঠিত হয়। সভায় নেতৃবৃন্দ প্রধান প্রকৌশলীর চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ বন্ধে ঔক্যমত পোষণ করে বলেন, অতীতে অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের মাধ্যমে অধিদপ্তরীয় ঊর্ধ্বতন পদে পদায়নের একটি প্রক্রিয়া চলছিল। কর্মকর্তাদের স্বার্থের পরিপন্থী এই প্রক্রিয়া বন্ধ করার লক্ষ্যে অতীতের ন্যায় বর্তমানেও আমরা সোচ্চার। চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ বন্ধের বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সকল সংগঠনের অনড় অবস্থানের কারণে অতীতে অধিদপ্তরে কাউকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ প্রদান করা হয়নি। উপস্থিত নেতৃবৃন্দ বলেন, দীর্ঘ প্রায় ৩০ (ত্রিশ) বছর চাকুরি করার পর প্রধান প্রকৌশলীর পদ প্রত্যাশিতদের মধ্যে থেকে প্রার্থীত পদে পদোন্নতি না করে বর্তমান প্রধান প্রকৌশলীকে চুক্তি ভিত্তিক নিয়োগ দেওয়া হলে কর্মরত কর্মকর্তারা কাঙ্খিত ও নায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হবে।
এ বিষয়ে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী সমিতির সভাপতি প্রকৌশলী মো. সাইফুর রহমান বলেন, অধিদপ্তরে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের বিরুদ্ধে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী সমিতির অবস্থান স্পষ্ট। কোন ভাবেই চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ মেনে নেওয়া হবে না। বর্তমান প্রধান প্রকৌশলীর চাকরির মেয়াদ ডিসেম্বর মাসে শেষ হবে। তার চাকরির মেয়াদ শেষে বর্তমানে অধিদপ্তরে কর্মরত সিনিয়র প্রকৌশলীদের মধ্য থেকে প্রধান প্রকৌশলী পদে পদোন্নতির জোর দাবি জানানো হয়।

আপনার মতামত লিখুন :