পটোল ভুনা

প্রকাশিত : ২৯ জুলাই ২০২১
পটোল ভুনা। ছবি: নাজমুন নাহার

ফেরদৌসি সুলতানা, রন্ধনশিল্পী:

উপকরণ

পটোল ৮-১০টি, কাজুবাদাম ২৫ গ্রাম, কিশমিশ ১০-১২টি, হলুদগুঁড়ো এক চা–চামচ, মরিচগুঁড়ো দেড় চা–চামচ, দেড় কাপ পেঁয়াজকুচি, আদাবাটা আধা চা–চামচ, রসুনবাটা আধা চা–চামচ, ধনেগুঁড়ো এক চা–চামচ, জিরাগুঁড়ো আধা চা–চামচ, টমেটো পিউরি আধা কাপ, তেল ও লবণ পরিমাণমতো।

প্রণালি
প্রথমে পটোলগুলো ছুরি দিয়ে চেঁছে নিতে হবে। চামড়া যেন ভালোভাবে পরিষ্কার হয় সেভাবে চেঁছে নেবেন। একটি ছুরির মাথা দিয়ে পটোলের তিন পাশ থেকে খানিকটা কেটে নিন। এতে পটোলের ভেতরে মসলা ঢুকবে। একটি পাত্রে আধা চা–চামচ হলুদের গুঁড়ো, আধা চা–চামচ মরিচের গুঁড়ো, পরিমাণমতো লবণ দিয়ে পটোলগুলো মাখিয়ে নিন।

এবার একটি ফ্রাইপ্যানে বা কড়াইয়ে পরিমাণমতো তেল ঢালুন। তেল গরম হয়ে এলে তাতে পটোলগুলো দিয়ে দিন। সব দিক ভালোভাবে ভেজে পটোলগুলো অন্য পাত্রে তুলে রাখুন।

এবার একই প্যানে প্রায় দেড় কাপের মতো পেঁয়াজকুচি ভেজে নিন। ভাজা শেষে পেঁয়াজগুলো তুলে রাখুন।

ওই একই তেলে আধা চা–চামচ আদাবাটা, আধা চা–চামচ রসুনবাটা, আধা চা–চামচ হলুদের গুঁড়ো, এক চা–চামচ মরিচের গুঁড়ো, এক চা–চামচ ধনেগুঁড়ো, আধা চা–চামচ জিরাগুঁড়ো ও পরিমাণমতো লবণ দিয়ে কষিয়ে নিন। প্রয়োজনে সামান্য পানি দিন। কষানো হয়ে গেলে আধা কাপ টমেটো পিউরি দিয়ে দিন। টমেটোর কাঁচা ভাব চলে গেলে বাদাম ও কিশমিশের পেস্ট দিন। বাদাম-টমেটো-মসলাগুলো ভালোভাবে রান্না হয়ে এলে এর মধ্যে ভাজা পেঁয়াজগুলো দিয়ে নাড়ুন।

এক কাপের মতো পানি দিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। পানি ফুটে এলে তাতে ভেজে রাখা পটোলগুলো দিয়ে দিন। পাঁচ–ছয় মিনিট রান্না করুন। পানি কমতে থাকলে গরম মসলার গুঁড়ো যোগ করুন। এই পর্যায়ে চুলার আঁচটা মাঝারি রাখুন। পটোল ভুনা ভুনা হওয়ার আগপর্যন্ত জ্বাল দিতে থাকুন। হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

আপনার মতামত লিখুন :