যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে রেকর্ড রোগী শনাক্ত ও হাসপাতালে সর্বোচ্চ রোগী

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারি ২০২২

ভোরের দর্পণ ডেস্ক:

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের দাপটে একদিনেই রেকর্ড ১১ লাখ ৩০ হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে বিশ্বের আর কোথাও একদিনে এত রোগী শনাক্ত হয়নি।

অপরদিকে দেশটিতে গতকাল সোমবার (১০ জানুয়ারি) ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ১ লাখ ৩২ হাজার ৬৪৬ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এর আগে গত বছর জানুয়ারিতে দেশটিতে সর্বোচ্চ ১ লাখ ৩২ হাজার ৫১ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি রাজ্যে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের কারণে সংক্রমণ বেড়ে গেছে। এর আগের রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রেরই ছিল, ওমিক্রনের বিস্তার শুরুর পর গত ৩ জানুয়ারি ১০ লাখ ৩ হাজার মানুষের কোভিড শনাক্ত হয়েছিল।

জরিপ পর্যালোচনাকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের আজ মঙ্গলবার (১১ ডিসেম্বর) সকালের তথ্য অনুযায়ী, করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৬ কোটি ২৪ লাখ ১৪ হাজার ৪৯৬ জন আক্রান্ত হয়েছে এবং ৮ লাখ ৬১ হাজার ১৮৪ জন মারা গেছেন।

গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা বেড়ে গেছে এবং গত তিন সপ্তাহে প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বিশ্লেষণ অনুযায়ী, ডেলাওয়্যার, ইলিনয়, মেইন, মেরিল্যান্ড, মিসৌরি, ওহাইও, পেনসিলভানিয়া, পুয়ের্তো রিকো, ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ, ভার্মন্ট, ভার্জিনিয়া, ওয়াশিংটন ডিসি এবং উইসকনসিনের হাসপাতালগুলোতে সম্প্রতি রেকর্ড সংখ্যক রোগী ভর্তি হয়েছে। ওয়াশিংটন ডিসিতে গত সপ্তাহে সবচেয়ে বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, ওমিক্রনের কারণে সামনের দিনগুলোতে হাসপাতালের ওপর চাপ পড়তে পারে। দেশটিতে প্রতিদিন গড়ে প্রায় ১ হাজার ৭০০ জন মারা যাচ্ছে বলে রয়টার্সের বিশ্লেষণে উঠে এসেছে।

এছাড়া সাতদিনের গড় হিসাব করলে দেখা যাচ্ছে, প্রতিদিন গড়ে ৭ লাখের বেশি রোগী শনাক্ত হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে।

গত নভেম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন পুরো বিশ্বেই প্রাধান্য বিস্তার করছে। রোগীর চাপে উদ্বেগ বাড়ছে ইউরোপেও।

গতবছর আধিপত্য বিস্তার করা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের চেয়ে অনেক বেশি দ্রুত ছড়ায় ওমিক্রন। তবে গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তির ঝুঁকি ডেল্টার চেয়ে কম বলে প্রাথমিক গবেষণায় দেখা যাচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :