২১ এপ্রিলের পর একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ইতালিতে

প্রকাশিত : ৩ মে ২০২০

ইতালিতে একদিনে আরও ৪৭৪ জন কোভিড-১৯ রোগী মারা গেছেন। গত ২১ এপ্রিলের পর দেশটিতে একদিনে এত মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি। অথচ গতকালও সেখানে করোনায় প্রাণহানির সংখ্যা ছিল ২৬৯ জন; যা আগের দিনগুলোর তুলনায় অনেক কম। দেশটির সরকারি কর্তৃপক্ষ শনিবার নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানিয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী ইতালির সিভিল প্রটেকশন এজেন্সি আজ শনিবার করোনাভাইরাসের হালনাদাগ তথ্য দিয়ে জানিয়েছে, দেশে এখন করোনায় প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৮ হাজার ৭১০ জনে। যা করোনায় মৃত্যুতে শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু ৬৫ হাজার ছাড়িয়েছে।

তবে দেশটির স্থানীয় পত্রিবা লা রিপাবলিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, একদিনে মৃত্যুর নতুন এই সংখ্যাটা বিভ্রান্তিকর এবং সম্ভবত গত এপ্রিলে যে ২৮২ জনের মৃত্যু সরকারি তালিকায় নথিভূক্ত করা হয়নি সেই সংখ্যাটা নতুন করে মৃত্যুর তালিকায় যুক্ত করা হয়েছে মাত্র। তবে এ বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেনি বিবিসি।

যদি নতুন করে এই তালিকায় গত এপ্রিলের ২৮২ জনের নাম যুক্ত হওয়ার ব্যাপারটি সত্য হয়ে থাকে তাহলে হয়তো পরিসংখ্যানটা অন্যরকম হবে। কেননা গত ১৪ মার্চের পর ইতালিতে একদিনে ২০০ জনের কম কোভিড-১৯ রোগীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি। সে হিসাবে গত একদিনের মৃত্যু হবে প্রায় দেড় মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন।

করোনার বিস্তার রোধে সাত সপ্তাহের বেশি সময় আগে ইতালিতে যে লকডাউন জারি করা হয়েছিল তা শিথিল করার পরিকল্পনার সরকারি ঘোষণার মধ্যে দেশটিতে করোনায় মুত্যু ফের বাড়ার এই খবর আসলো। আগামী ৪ মে থেকে দেশটিতে সংখ্যায় অল্প মানুষ তাদের আত্মীয়দের বাসায় যাওয়ার অনুমতি পেতে যাচ্ছে। এছাড়া খুলে দেওয়া হবে কারখানা, পার্ক ও ভবন।

আপনার মতামত লিখুন :