বিএসএমএমউতে করোনাভাইরাস টেস্ট করানোর সুযোগ

প্রকাশিত : ২ এপ্রিল ২০২০

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) এর শাহবাগের বাংলাদেশ বেতার ভবনের দ্বিতীয় তলায় স্থাপিত করোনাভাইরাস ল্যাবরেটরিতে আজ বুধবার (১লা এপ্রিল) করোনাভাইরাস শনাক্তকরণের পরীক্ষা-নিরীক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্র্রতিদিন সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট রোগীরা এই ল্যাবরেটরিতে নিয়ম মেনে পরীক্ষাটি করতে পারবেন।

বুধবার সকালে ল্যাবের সার্বিক বিষয়ে খোঁজ-খবর নিতে সেখানে পরিদর্শন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, ভাইরোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সাইফ উল্লাহ মুন্সী।

উপাচার্য পরে বেতার ভবনের নিচ তলায় স্থাপিত জ্বর, সর্দি, হাঁচি-কাশি রোগীদের জন্য নির্ধারিত ফিভার ক্লিনিকের চিকিৎসাসেবা কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। প্রথম দিনে কিছু সংখ্যক স্যাম্পল পাওয়া গেছে। স্যাম্পলগুলোর ফলাফল আইইডিসিআরকে জানিয়ে দেয়া হবে।

পরে সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রী যে নির্দেশনা দিয়েছেন তা দেশবাসীকে অবশ্যই মেনে চলতে হবে। আমাদের নিজেদের সুরক্ষা নিজেদেরকেই করতে হবে।

তিনি জানান, এই ল্যাবরেটরিতে করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য ২৪০টি কিট রয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, আইইডিসিআরসহ সংশ্লিষ্ট সকল প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সমন্বিতভাবে এই ল্যাবরেটরির কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

তিনি আরো জানান, প্রয়োজন হলে বেতার ভবনে আইসোলেশন ইউনিট চালু করা হবে এবং চিকিৎসার জন্য উদ্ভূত পরিস্থিতে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ভাইরোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সাইফ উল্লাহ মুন্সী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনাভাইরাস ল্যাবরেটরিতে এসে রোগীদের ভোগান্তি হওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। এই ল্যাবরেটরির নিচতলায় স্থাপিত ফিভার ক্লিনিকে কর্তৃব্যরত চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে কোনো রোগী করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত হলে সাথে সাথেই তার পরীক্ষার জন্য স্যাম্পল সংগ্রহ করে পরীক্ষাটি করা হবে। এই পরীক্ষার ফলাফল পেতে ৩ থেকে ৪ ঘণ্টা সময় লাগবে। কোনো রোগীর দেহে করোনাভাইরাস পজেটিভ পেলে সাথে সাথে সেটা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হবে।

তিনি আরো জনান, যথাযথ নিয়ম ও প্রোটকল অনুসারে বাইরে থেকে স্যাম্পল সংগ্রহ করে আনা হলে সেসকল স্যাম্পলও টেস্ট করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :