সৌমিত্রের শারীরিক অবস্থার উন্নতি

প্রকাশিত : ৭ নভেম্বর ২০২০

ভোরের দর্পণ ডেস্ক:

উন্নতির দিকে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থা। ফলে বন্ধ করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে এই অভিনেতার অ্যান্টিবায়োটিক ও অ্যান্টিফাঙ্গাল ওষুধ প্রয়োগ। শুক্রবার (৬ নভেম্বর) মধ্য রাতে এ সিদ্ধান্তের কথা জানায় সৌমিত্রের চিকিৎসক দল। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, শরীরে নতুন কোনও সংক্রমণ দেখা না দেওয়ায় শনিবার থেকে অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধের ডোজ বন্ধ করা হতে পারে। তবে আপাতত তাকে ভেন্টিলেশন সাপোর্টেই রাখা হবে। ৮৫ বছর বয়সী অভিনেতার শ্বাসনালীর জন্য ট্রাকিওস্টোমি করা হবে কি না, তা নিয়েও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে দুয়েক দিনের মধ্যেই।

শ্বাসনালীর চিকিৎসার অন্যতম মাধ্যম ট্রাকিওস্টোমি টিউব। অস্ত্রোপচার করে শ্বাসনালীতে (ট্রাকিয়া) ট্রাকিওস্টোমি টিউব স্থাপন করা হয়ে থাকে। যাতে নাক-মুখের বদলে গলায় থাকা ওই টিউবের মুক্ত প্রান্তের মধ্য দিয়ে শ্বাসপ্রশ্বাস কার্য সম্পাদিত হয়।

সৌমিত্রের কিডনিও আগের চেয়ে ভালোভাবে কাজ করছে।আপাতত নিয়মিত ডায়ালিসিস প্রয়োজন পড়ছে না। অভিনেতার অবস্থার এই পরিবর্তন যথেষ্ট ইতিবাচক বলেই মনে করছেন চিকিৎসকরা তবে সুস্থ হতে দীর্ঘ চিকিৎসার প্রয়োজন তা পরিবারকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

মেডিক্যাল বোর্ডের প্রধান অরিন্দম কর জানান, শারীরিক অবস্থার খানিক উন্নতি হয়েছে। আগের চেয়ে সচেতনতা বেড়েছে তার। স্বাভাবিকভাবে চোখ খুলছেন। কিডনি সম্পূর্ণ স্বাভাবিক হয়ে উঠবে বলে আশা করা যাচ্ছে। ইনফেকশন আগের চেয়ে ভালো অবস্থায় আছে। শরীরে জ্বর নেই। অ্যান্টিবায়োটিক বন্ধ করে দেওয়া হবে। অ্যানিমিয়াও স্থিতিশীল। লিভারের কার্যক্ষমতাও ঠিকঠাক। এটা বলতে পারি, গত ৭ দিনের চেয়ে তার শারীরিক অবস্থার ভালোই উন্নতি হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :