নির্বাচনী এলাকায় ত্রাণের দাবিতে হাহাকার, টিকটক নিয়ে ব্যস্ত নুসরাত

প্রকাশিত : ২৫ এপ্রিল ২০২০

করোনাভাইরাসের এই সংকটময় মুহূর্তে ত্রাণের দাবিতে মানুষ যখন রাস্তায় তখন টিকটক ভিডিও করে সমালোচনায় এলেন টালিউড অভিনেত্রী ও ভারতের বসিরহাটের সাংসদ নুসরাত জাহান। অভিনেত্রীর নির্বাচনী এলাকা বাদুড়িয়ায় জনতার ক্রোধের জেরে মাথা ফেটেছে থানার ওসির। এমনই খবর জানায় ভারতীয় গণমাধ্যম। তবে দেশের এমন দুর্দিনে টিকটকে মজে বসিরহাটের সাংসদ নুসরাত জাহান। কিছুদিন আগে রান্নার ভিডিও শেয়ার করার জন্য সমালোচনা হয়েছিল অভিনেত্রীকে নিয়ে। এবার টিকটক ভিডিও শেয়ার করায় নেটিজেনদের কটাক্ষের শিকার হলেন তিনি।

সম্প্রতি নুসরাত নিজের টিকটক প্রোফাইলে দু’টি ভিডিও শেয়ার করেছেন। সেখানে অভিনেত্রীকে ইংরেজি গানের সঙ্গে নাচতে দেখা যায়। সেই ভিডিও দু’টি নিয়েই সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠেছে সমালোচনার ঝড়। নেটিজেনরা প্রশ্ন তুলছেন, গোটা দেশ এখন করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। ক্রমশ বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। কাজকর্ম বন্ধ করে ঘরবন্দী হয়েছে মানুষ। এই সময় মানুষের পাশে দাঁড়ানো উচিত। কিন্তু নুসরাত কিনা টিকটক ভিডিও করছেন! তিনি তো বসিরহাটের সাংসদ। এই সময় মানুষের জন্য কাজ করা উচিত তার। বন্ধু মিমি তো ক্রমাগত কাজ করে যাচ্ছেন। কখনও ওষুধ ডেলিভারি দেওয়ার ব্যবস্থা করছেন, কখনও সচেতনতা প্রচার করছেন বাড়িতে বসেই। নুসরাতকে অবশ্য একদিন একটি বাজারে দেখা গিয়েছিল। সচেতনতা প্রচার চালিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তারপর থেকে তিনি তো ডুমুরের ফুল হয়ে উঠেছেন। দেশের এই দুর্দিনে তিনি কিনা টিকটক করছেন! এই নিয়েই বেশ ক্ষুব্ধ নেটিজেনরা। যদিও বরাবরের মতো নুসরাত এনিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি।

কিছুদিন আগে রান্নার ভিডিও শেয়ার করার জন্য সমালোচনার মুখে পড়তে হয় নুসরাতকে। সে সময় সমালোচকরা বলেন, লকডাউনে মানুষ খাবার পাচ্ছে না, আর আপনি রান্নার ভিডিও পোস্ট করছেন? এই বিপদে জনগণ আপনাকে পাশে চায়, রান্না করতে দেখতে চায় না! হয় জনগণের পাশে দাঁড়ান নাহলে সার্কাস বন্ধ করুন।

আপনার মতামত লিখুন :