মহানবীকে কটূক্তি: রাষ্ট্রীয় প্রতিবাদের দাবি ইবি শিক্ষক সমিতির

প্রকাশিত : ১৪ জুন ২০২২
মানববন্ধনে শিক্ষকরা ছাড়াও কর্মকর্তা-কর্মচারী ও কয়েক শ’ শিক্ষার্থী অংশ নেন।

ইবি প্রতিনিধিঃ ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির দুই নেতা কর্তৃক মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ও তার স্ত্রী আয়েশা (রা.) কে কটূক্তির প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। মঙ্গলবার (১৪ জুন) সকাল ১১টায় ক্যাম্পাসের অনুষদ ভবনের সামনে শিক্ষক সমিতি এর আয়োজন করে। এতে শিক্ষকরা ছাড়াও কর্মকর্তা-কর্মচারী ও কয়েক শ’ শিক্ষার্থী অংশ নেন।

মানববন্ধনে শিক্ষকরা বলেন, বিশ্বে মুসলিমের হৃদয়ের স্পন্দন মহানবীকে কটূক্তির মাধ্যমে বিশ্বের দেড়শ কোটি মুসলমানের হৃদয়ে আঘাত করেছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এ ঘটনায় কয়েকদিন পার হলেও মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ বাংলাদেশের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা না জানানোর ঘটনা আমাদেরকে আরো বেশী মর্মাহত করেছে। তারা দ্রুত সময়ের মধ্যে রাষ্ট্রীয়ভাবে প্রতিবাদ জানানোর দাবি জানান। একইসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকেও প্রতিবাদ জানানোর দাবি করেন তারা।

এসময় সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মিজানূর রহমানের সভাপতিত্বে সহ-সভাপতি অধ্যাপক আনোয়ারুল হক, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাহাঙ্গীর হোসেন, যুগ্ম-সম্পাদক অধ্যাপক মিজানুর রহমান, সদস্য অধ্যাপক আনোয়ার হেসেন, অধ্যাপক রুহুল কে এম সালেহ, অধ্যাপক তোজাম্মেল হোসেনসহ অন্য সদস্যরা বক্তব্য রাখেন।

শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মিজানূর রহমান বলেন, কোন ধর্মের অধিকার নেই অন্য ধর্মকে আঘাত করার। ভারতের ওই দুই নেতা বিশ্বের সকল মুসলমানকে আঘাত দিয়েছে। সারা বিশ্বেই প্রতিবাদ হচ্ছে। আমাদেরও মনে হয়েছে শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ জানানো উচিৎ এজন্য মানববন্ধন কর্মসূচি পালনের উদ্যোগ নেওয়া। আমরা শিক্ষার্থীসহ বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সবাইকে অংশ নেওয়ার আহবান জানিয়েছিলাম। তারাও স্বতঃস্ফুর্তভাবে অংশ নিয়েছে। মানববন্ধন থেকে আমরা ‘রাষ্ট্রীয়ভাবে’ নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর দাবি জানিয়েছি ।

এর আগে একই ইস্যুতে গত শুক্রবার (১০ জুন) জুমার নামাজের পর ক্যাম্পাসে বিক্ষাভ ও মানববন্ধন করেন সহস্রাধিক শিক্ষার্থী। এরপর শনিবার জমিয়তে তালাবায়ে আরাবিয়া সংগঠনের সদস্যরা ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করেন।

আপনার মতামত লিখুন :