করোনার ঝুঁকিতে রপ্তানি খাত

প্রকাশিত : ৩০ মার্চ ২০২০

মহামারীর আকারে ছড়াতে থাকা নভেল করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়। তাদের হিসেবে বিশ্বের ১৬০টি দেশে ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা তিন লাখের বেশি। এদিকে বাংলাদেশে আরও তিনজনের মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে, যাদের মধ্যে সত্তরোর্ধ একজনের অবস্থা আশংকাজনক। এই তিনজনকে বাংলাদেশে আক্রান্তের সংখ্যা (শনিবার পর্যন্ত) দাঁড়িয়েছে ২০ জনে। এ পর্যন্ত বাংলাদেশে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। মহামারি যেভাবে সবকিছু অচল করে ফেলছে তাতে বিশ্ব একটি অর্র্থনৈতিক মন্দার দুয়ারে পৌঁছে দিয়েছে বলে সতর্ক করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস। ভাইরাসের মোকাবেলায় দেশে দেশে যেসব পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে তা এই জটিল বৈশ্বিক সংকট মোকাবিলায় যথেষ্ট নয় বলেও বিশ্ব নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে জাতিসংঘ মহাসচিব সাংবাদিকদের বলেন, এটা এমন এক সময় যখন বড় অর্থনীতির দেশগুলোকে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য ঠিক করে সমন্বিতভাবে উদ্ভাবনী কর্মপন্থা ঠিক করে কাজে নামতে হবে। করোনাভাইরাস বাংলাদেশের অর্থনীতির জন্য ইতিমধ্যে অশনি সংকেত হয়ে দেখা দিয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় যে প্রস্তুতি নেওয়া প্রযোজন সেটি সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলো নিতে পেরেছে বলে মনে হয় না। জনগণকে এ ব্যাপারে যথেষ্ট সচেতন করা যায়নি। এই ভাইরাসের বিস্তার রোধের একমাত্র পথ হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ যতটা সম্ভব সীমিত করা। জাতিসংঘের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় পুরো সরকারের সমন্বিত উদ্যোগ জরুরি। পাশাপাশি জাতির এই ক্রান্তিলগ্নে দেশের সামর্থ্যবান এবং ধনী মানুষদের উচিত হবে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানো। 

আপনার মতামত লিখুন :