শ্রীমঙ্গলে বিপুল পরিমাণের চাল উদ্ধার

প্রকাশিত : ২৩ এপ্রিল ২০২০

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ১০ টাকা কেজি দরের সরকারী খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির বিপুল পরিমান চাল, খালি ও পোড়া বস্তা উদ্ধার করেছে র‌্যাব-৯ শ্রীমঙ্গল ক্যাম্পের সদস্যরা। গোয়েন্দা সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব -৯ ক্যাম্পের কমান্ডার এএসপি আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে র‌্যাব সদস্যরা পৃথক অভিযান চালিয়ে এসব চাল ও খোলা চালের বস্তা উদ্ধার করা হয়।

বুধবার (২২ এপ্রিল) বিকেলে র‌্যাব-৯ শ্রীমঙ্গল ক্যাম্পের সদস্যরা জেলার সদর উপজেলার গিয়াসনগর ইউনিয়নের রাঙ্গুরিয়া গ্রামের ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভৈরগঞ্জ বাজারের ভূষিমাল ব্যবসায়ী নপুর কান্তি রায় এর বাড়ীতে প্রথমে অভিযান চালায় তারা। সেখান থেকে র‌্যাব সদস্যরা বিপুল পরিমানের ১০ টাকা কেজি দরের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির সরকারী চাল উদ্ধার করে।

এসময়  নপুর কান্তি  রায়ের দেয়া তথ্যের  ভিত্তিতে কালাপুর ইউনিয়নের ভৈরবগঞ্জ বাজারের শাহজালাল মাকের্টের পেছনের একটি ময়লার ভাগার থেকে ৪০টির মতো  খালি বস্তা ও  আগুনে পুড়ানো বস্তার অংশবিশেষ  উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব কমান্ডার আনোয়ার হোসেন জানান, ধৃত নপুর কান্তি রায়  কালাপুর ইউনিয়নের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি ১০ টাকা কেজি সরকারী চালের  ডিলার আনোয়ার হোসেন কাছ  থেকে চাল কেনার কথা স্বীকার করেছে।

র‌্যাব কমান্ডার জানান, ভৈরবগঞ্জ বাজারের একটি ভাগার থেকে  ‘ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ – শেখ হাসিনার বাংলাদেশ’ খোচিত  বিপুল পরিমান পোড়া, অর্ধ পোড়া ও পোড়া বস্তার ছাই পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন, এসব চাল গরীবের জন্য প্রধানমন্ত্রীর উপহার। সেই গরীবের চাল চুরি করে বিক্রির চেষ্টা করার গোয়েন্দা সংবাদের ভিত্তিতে আমরা এ অভিযান পরিচালনা করি। আটক নপুরকে শ্রীমঙ্গল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে । ডিলার আনোয়ার হোসেন পলাতক রয়েছে। এঘটনায় শ্রীমঙ্গল থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

 

আপনার মতামত লিখুন :