পৌরসভা নির্বাচন : দুর্গাপুরে জমে উঠেছে প্রচার-প্রচারণা

প্রকাশিত : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১

দুর্গাপুর, রাজশাহী প্রতিনিধি:

রাজশাহীর দুর্গাপুরে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি পঞ্চম ধাপের ইভিএমের মাধ্যমে পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন কমিশন থেকে তফসিল ঘোষণার পরপরই জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা। নির্বাচনী উত্তাপ ছড়িয়ে পড়েছে চারিদিকে প্রার্থীরা দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন মাঠ, পোস্টারে ছেঁয়ে গেছে পুরো এলাকা।

 

দল থেকে মনোনয়ন পাওয়ার পর নির্বাচনকে সামনে রেখে ব্যস্ত সময় পার করছেন মেয়র প্রার্থীরা। নৌকা প্রতীক পেয়েছেন বর্তমান মেয়ের তোফাজ্জল হোসেন, ধানের শীষ প্রতীক পেয়েছেন জার্জিস হোসেন ও লাঙ্গল প্রতীক পেয়েছেন মো. হুমায়ন কবির। ফের ‘মোবাইল’ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্ধিতাতায় নেমেছেন দুর্গাপুর পৌরসভা মৎস্যজীবি লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হাসানুজ্জামান (সান্টু)। পৌর নির্বাচনে তিন হ্যাভিওয়েট পার্থী তোফাজ্জল, সোহেল ও সান্টু চষে বেড়াচ্ছেন নির্বাচনী মাঠ।

আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় কিছুটা বেকায়দায় পড়েছেন নৌকা মনোনীত প্রার্থী। অন্যদিকে, অভ্যন্তরীণ কোন্দল মিটিয়ে ভালো অবস্থানে রয়ছে বিএনপি। কিন্তু প্রচারণায় এগিয়ে নৌকা মনোনীত প্রার্থী এখন দেখার অপেক্ষা ভোটের লড়াইয়ে বিজয়ের মুকুট কে অর্জন করে?

আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান মেয়র তোফাজ্জল হোসেন বলেন, আমার সমর্থকেরা আচরণবিধি মেনেই প্রচার-প্রচারণা করছে। বিপক্ষ প্রার্থীরা বিভিন্ন মিথ্যা প্রপাগান্ডা ছড়াচ্ছে। সবকিছু এভাবে ঠিক থাকলে আগামীতে আবারও বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারবো ইনশাআল্লাহ।

এদিকে বিএনপি পার্থী জার্জিস হোসেন (সোহেল) বলেন, আমার প্রচারণায় বাধা সৃষ্টি করছে ও হামলা চালাচ্ছে। ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করা হচ্ছে। তবে সুষ্ঠু ভোট হলে ইনশাল্লাহ আমি জয়ী হবো।

জাতীয় পার্টির পার্থী মো. হুমায়ূন কবির বলেন, ভোটারদের মাঝে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি কিন্তু ভয় কাজ করছে। সুষ্ঠ নির্বাচন হলে আমি বিজয়ী হবো ইনশাআল্লাহ। পিছিয়ে পড়া পৌরসভার-কে এগিয়ে নিতে ভুমিকা রাখতে পারবো।

বিদ্রোহী প্রার্থী হাসানুজ্জামান সান্টু বলেন, আমার প্রচার মাইক ভাংচুর পোস্টার ছিড়ে ফেলা হচ্ছে, সহিংসতা সৃষ্টির জন্য বিভিন্ন প্রয়াস অব্যাহত রেখেছে। সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। প্রভাবমুক্ত নির্বাচন হলে বিপুল ভোটে জয়ী হবো ইনশাআল্লাহ।

নির্বাচনের সার্বিক দিক তুলে ধরে দুর্গাপুর নির্বাচন অফিসার আসাদুজ্জামান বলেন, এখন পর্যন্ত দুই একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া সব কিছুই ঠিক রয়েছে। যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য আমরা প্রস্তুত রয়েছি। এবার ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :