বগুড়ার শেরপুরে ঘরবন্দী মানুষের জন্য পুলিশের সূলভে ভ্রাম্যমাণ বিক্রয় কেন্দ্র 

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০২০

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি: দিনে দিনে করোনার সংক্রমন বাড়ছে। মানুষকে গৃহবন্দি করতে তৎপর রয়েছে প্রশাসন। এদিকে গৃহবন্দি থাকার কারণে আয়ের পথ বন্ধ হচ্ছে। সাধারণ মানুষের নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী কিনতে গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত অর্থ। তাইতো  বগুড়া লকডাউন চলাকালীন সময়ে ঘরবন্দী মানুষদের নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী স্বল্পমূল্যে বাড়ী বাড়ী পৌছে দিতে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহন করেছে বগুড়া পুলিশ। এ সহায়তার লক্ষ্যে বগুড়া জেলা পুলিশের উদ্যোগে সুলভমুল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর ভ্রাম্যমাণ বিক্রয় কেন্দ্র উদ্বোধন করেছে শেরপুর থানা পুলিশ। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে শেরপুর শহরের ধুনট মোড়ে এই বিক্রয় কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শেরপুর সার্কেল) মো. গাজীউর রহমান। 
এ সময় শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবীর, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ, টাউন পুলিশ পরিদর্শক হারুন অর রশিদ, ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক মুহা. জাহিদ হোসেনসহ পুলিশ সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উদ্বোধনকালে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজীউর রহমান জানান,  করোনা ভাইরাসের সংক্রমন ঠেকাতে ঘরবন্দী মানুষের কাছে সুলভমুল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী তুলে দেবার লক্ষ্যে এই কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে শেরপুর পৌর শহরের ৯টি ওয়ার্ডে পুলিশের তত্ত¡াবধানে গাড়ি থেকে ভ্রাম্যমাণ বিক্রয় কেন্দ্রের মাধ্যমে নিত্যপণ্য যেমন, চাল, চিনি, লবন, তেল, সাবান, ডাল, আলু, পিয়াজসহ ১৯টি আইটেমের দ্রব্য বিক্রি করা হবে। এবং যার মূল্য হবে বাজার মুল্যের চেয়ে অনেকটা কম।
তিনি আরো বলেন, এ ভ্রাম্যমান বিক্রয় কেন্দ্রের ফলে হাতের কাছে প্রয়োজনীয় জিনিস পেলে লকডাউন চলাকালে মানুষের বাজারে যাবার প্রবণতা কমবে। যার ফলে করোনা ভাইরাসের সংক্রমন প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে। সেই সাথে তিনি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সবাইকে ঘরে থাকার জন্য অনুরোধ করেন। 
এ ছাড়াও পৌর শহরের পাশাপাশি উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নের ওয়ার্ড ভিত্তিক ভ্রাম্যমাণ বিক্রয় কেন্দ্রের মাধ্যমে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রী বিক্রয় করা হবে বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা। 
 

আপনার মতামত লিখুন :