বকশীগঞ্জে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে আ.লীগের নেতাকর্মীদের পুলিশী বাধার অভিযোগ

প্রকাশিত : ১৫ আগস্ট ২০২২

মতিন রহমান, বকশীগঞ্জ(জামালপুর) প্রতিনিধি:

জামালপুরের বকশীগঞ্জে জা‌তির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মু‌জিবুর রহমা‌নের ৪৭ তম শাহাদত বা‌র্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালনে পুলিশের বাধাঁর কারনে শোক দিবসের কোন অনুষ্ঠানে যেতে পারেনি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ ও দলীয় নেতাকর্মীরা।

সোমবার (১৫ আগষ্ট) বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দিনব্যাপী কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়। সকালে পতাকা উত্তোলন,কালোব্যাজ ধারন,বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

এছাড়াও বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদ ও সিনিয়র নেতৃবৃন্দ নিয়ে দেওয়ানগঞ্জ ও বকশীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে উপজেলার পাররামরামপুর মোড়ে বাধাঁর সম্মুখীন হন নুরমোহাম্মদ ও দলীয় নেতাকর্মীরা। গাড়ির বহর সেখান থেকে ফিরে সাধুরপাড়া যাওয়ার পথে বটতলা এলাকায় আবারো পুলিশি বাধাঁর মুখে পড়েন তারা।

এসময় বহর থেকে বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল আটক করে পুলিশ। বাধ্য হয়ে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে না গিয়ে ফিরে আসেন আওয়ামীলীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদসহ নেতাকর্মীরা। ফিরে এসে বিকালে উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শিল্পপতি নুর মোহাম্মদ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দীর্ঘদিন যাবত সততা ও নিষ্ঠার সাথে বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি সেই সাথে আমি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী সেই কারনে আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে এমপি আবুল কালাম আজাদের নির্দেশে প্রশাসন ও পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে জা‌তির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মু‌জিবুর রহমা‌নের ৪৭ তম শাহাদত বা‌র্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালনে বাধাঁর সৃষ্টি করেছে। পুলিশি বাধাঁর কারনে আমিসহ দলীয় নেতাকর্মীরা কেউ শোক দিবসের অনুষ্ঠানে যেতে পারিনি।

উল্লেখ্য, গত রোববার রাতে বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নুর মোহাম্মদকে শোক দিবস উপলক্ষে দেওয়ানগঞ্জের কোন অনুষ্ঠানে যেতে নিষেধ করে উপজেলা প্রশাসন। আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে উল্লেখ করে তাকে দেওয়ানগঞ্জ যেতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিষেধ করা হয়। এই ঘটনায় রাতেই দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করে প্রতিবাদ জানায় বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ।

এ ব্যাপারে বকশীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ তরিকুল ইসলাম জানান, আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার আশংকা রয়েছে মনে করে তাকে এই সফর বাতিল করতে বলা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :