ধোবাউড়ায় আবাসিক এলাকায় রাইসমিল ও তেলের মিল নির্মাণের পাঁয়তারা

প্রকাশিত : ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১

ধোবাউড়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ

ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলার মুন্সিরহাট বাজারে আবাসিক এলাকায় একটি রাইস মিল ও একটি তেলের মিল করার পাঁয়তারা চলছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মুন্সিরহাট বাজারের মৃত আব্দুল মন্নাফের পুত্র রাসেল বেপারী তার বসতবাড়িতে মিলগুলো স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, মুন্সিরহাট খাদ্য গোদামের উত্তর পাশে রাইস মিল স্থাপনের প্রস্তুতি চলছে। এখানে অনেকগুলো পরিবারের বসবাস। প্রস্তাবিত রাইস মিলটির পাশের বাড়িটিতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা হনুফা পারভীন তাঁর তিন ছেলের পরিবারসহ বসবাস করছেন। হনুফা পারভীন জানান, রাইস মিলের নির্মাণ কাজের শব্দে তাঁর ২ বছর বয়সী নাতনিটি সবসময় আতঙ্কিত হয়ে থাকে।

একটা হাতুড়ির শব্দ হলেও মেয়েটি কেঁদে ওঠে। তিনি নিজেও হাই ব্লাড প্রেশার ও ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। নির্মাণ কাজের শব্দে পরিবারের সবাই অসুস্থ হয়ে পড়েছে। আর মিল চালু হলে এখানে বসবাস করা অসম্ভব হয়ে পড়বে। মিলটির নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানান তিনি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অন্য একজন স্থানীয় বাসিন্দা জানান, নির্মাণাধীন মিলটির আশেপাশে অনেকগুলো বসতবাড়ি, একটি সরকারি খাদ্য গোদাম, একটি সরকারি ব্যাংকের শাখা ও একটি বেসরকারি স্কুল রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ করলেও রাসেল শুনেনি। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ফরহাদ রব্বানী সুমনকে জানালে তিনি শালিসি বৈঠক ডাকেন।

কিন্তু রাসেল বেপারী অদৃশ্য ক্ষমতার জোরে শালিসে বসে নি। পরে বাধ্য হয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ডেভিড রানা চিসিম ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দুটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাফিকুজ্জামান জানান, ফুড অফিসারকে তদন্ত করে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। রিপোর্ট হাতে পেলেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

আপনার মতামত লিখুন :