শেরপুরে প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে এক মহিলা নিহত

প্রকাশিত : ১১ মে ২০২০

শেরপুর প্রতিনিধি : শেরপুর জেলার সদর উপজেলার পাকুড়িয়া ইউনিয়নের খামারপাড়া গ্রামে ১০ মে রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে পূর্বশত্রæতার কলহের জেরধরে প্রতিপক্ষ হানিফ, মিসকিন গংদের লাঠির আঘাতে মালেকা বেগম (৪০) নামে এক মহিলা নিহত হয়েছেন নিহত মালেকা বেগম খামারপাড়া গ্রামের মোর্শেদের স্ত্রী সে দুই ছেলে এক কন্যা সন্তানের জননী 

পুলিশ নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার পাকুড়িয়া ইউনিয়নের খামারপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মোর্শেদের বাড়ী সীমানাকে কেন্দ্র করে একই গ্রামর প্রতিবেশী আঃ গণির ছেলে হানিফ আঃ সামাদের ছেলে মিসকিন গংদের সাথে মোর্শেদ তার স্ত্রী মালেকা বেগমের কথা কাটাকাটি হয় এরই এক পর্যায়ে রোববার রাতে প্রতিপক্ষ হানিফ তার সহযোগিরা মোর্শেদের বশতবাড়ীতে হামলা চালায় এবং মালেকা বেগমকে প্রহার করে লাঠি দিয়ে ঘাড়ে আঘাত করে পরে গুরুতর আহত মালেকা বেগমকে রাতেই শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১১টার দিকে মালেকা মারা যায় ১১ মে সকাল সাড়ে ১০টায় নিহত মালেকা বেগমের মৃত দেহের সূরতহাল রিপোর্ট তৈরি শেষে ময়না তদন্ত জন্য শেরপুর জেলা সদর হাসাপতালে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে

এদিকে পাকুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হায়দার আলীর সাথে কথা হলে তিনি জানান, গত / দিন পূর্বে ওই মহিলার বাড়ির সীমানার কাছে কিছু ফলজ গাছ কে বা কারা উপড়ে ফেলে এবং বিষয়ে সে ওই উপড়ে ফেলা গাছগুলো চেয়ারম্যানকে দেখাতে যায় ঘটনার পর থেকেই প্রতিপক্ষ হানিফ মিসকিন গংদের সাথে ঝগড়া কলহ চলে আসছিল

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ আমিনুল ইসলাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এব্যাপারে শেরপুর সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে

 

আপনার মতামত লিখুন :