গাজীপুরে তুরাগ ও শালদহ নদীতে শুঁটকি তৈরির ধুম

প্রকাশিত : ১৮ নভেম্বর ২০২১

সাইফুল ইসলাম শুভ, গাজীপুর সদর প্রতিনিধি:

গাজীপুর সদর উপজেলা তুরাক ও শালদহ নদীতে পানি কমতে শুরু করেছে। জেলের জালে ধরা পড়ছে নানা প্রজাতির মাছ। আর সেগুলো রোদে শুকিয়ে তৈরি করা হচ্ছে শুঁটকি। এ অঞ্চলের শতাধিক বাড়ির মানুষ এখন শুঁটকি তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন ব্যবসায়ী ও শ্রমিকরা।

গাজীপুরের কালিয়াকৈর, ভেরাম তুলি , খাঁতাচূরা, পিরুজালী,চা বাগান, মির্জাপুরে বিস্তীর্ণ এলাকার বিভিন্ন স্থানে শুঁটকির জন‌্য চাতাল তৈরি করেছেন ব্যবসায়ীরা।

তুরাগ ও শালদহ নদীতে প্রচুর পোনা মাছ, পুটি , চিংড়ি, মাগুর, রুই, কাতলা, মৃগেল, বাউশ, আইড়, রিটা , ইত্যাদি মাছ পাওয়া যায়। শুঁটকি তৈরি করে বিভিন্ন হাট-বাজারে পাঠানো হয়।

শুঁটকি ব্যবসায়ী আতিকুল ইসলাম ও আছিফ ভোরের দর্পণ কে জানান, এ ব্যবসায় অনেক লাভ। গাজীপুরে মাছের শুঁটকির চাহিদা রয়েছে। পানি কমার সঙ্গে সঙ্গে বিল এলাকায় বিভিন্ন ধরনের মাছ পাওয়া যাচ্ছে। এখন মাছের দামও অনেক। সরেজমিনে দেখা যায়, বিভিন্ন চাতালে শুঁটকি তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন নারী-পুরুষ।

গাজীপুর কালিয়াকৈর খাঁতাচৃরা এলাকার জেলে আতিকুল, ভোরের দর্পণ কে জানান, শুকনো মৌসুমে তারা ক্ষেতে-খামারে কাজ করেন। বর্ষা মৌসুমে কাজ না থাকায় রাত-দিন খরা জাল দিয়ে নদীতে মাছ শিকার করেন। এরপর তা আড়তে বিক্রি করেন। সেই মাছগুলো যায় শুঁটকির চাতালে।

 

আপনার মতামত লিখুন :