গাজীপুর জেলার সিভিল সার্জনসহ ১৫০ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে

প্রকাশিত : ১২ এপ্রিল ২০২০

মঞ্জুর হোসেন মিলন, গাজীপুরঃ গাজীপুরে সিভিল সার্জনের কার্র্র্য্যালয়েল এক নাইটগার্ডসহ ৫ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ফলে রবিবার ভোরে গাজীপুরের সিভিল সার্জন ডা. খায়রুজ্জামান ও তার অফিসের ১২ কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ মিলিয়ে দেড় শতাধিক ব্যক্তিকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। গাজীপুরের সিভিল সার্জন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। গাজীপুরের সিভিল সার্জন ডা. খায়রুজ্জামান জানান, শনিবার গাজীপুরের সিটি কর্পোরেশন এলাকার  চারজন ও কাপাসিয়ার উপজেলার এক ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষার পর করোনাভাইরাস পজিটিভ আসে। ওই পাঁচজনের মধ্যে তার অফিসের নাইটগার্ডও রয়েছেন। ওই নাইটগার্ড কয়েকদিন পূর্বে তার নিজ বাড়ি কাপাসিয়া গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ফেরার পর তার মাঝে করোনার কিছু উপসর্গ তার মধ্যে  দেখতে পেয়ে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করতে ঢাকায় পাঠানো হয়। গত শনিবার নমুনার রেজাল্ট পজিটিভ আসে। তাকে তাৎক্ষণিকভাবে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। করোনা রোগীরা যাদের সংস্পর্শে আসেন তাদেরও সংক্রমণের সম্ভাবনা থাকে। এজন্য তিনি ও তার অফিসের ১৩ কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ মোট ১৫০জনকে শনাক্ত করে হোম কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে। সিভিল সার্জন কার্যালয়ের অন্যান্য স্টাফদেরও নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তিনি সরকারি বাসাতে কোয়ারেন্টাইনে থেকেই কাজ করছেন। সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানায়, শনিবার পর্যন্ত জেলায় ২ হাজার ৯৪৪ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। এর মধ্যে দুই হাজার ৫৮৩ জন নির্দিষ্ট সময়ে সংক্রমিত না হওয়ায় কোয়ারেন্টাইন ছেড়েছেন। এ পর্যন্ত ৩০১ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। এর মধ্যে ১১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। 
 

আপনার মতামত লিখুন :