কালিয়াকৈরে খাদ্যসামগ্রী বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশিত : ৪ মে ২০২০

কালিয়াকৈর(গাজীপুর) প্রতিনিধি : গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার আটাবহ ইউনিয়নের বাসিন্দাদের মধ্যে ১০ টাকা কেজি চাল বিতরনে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ওই ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য  জহিরুল ইসলাম লিটন নিজের লোক দেখে দেখে সরকারের দেওয়া খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন এলাকাবাসী

 খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার আটাবহ ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জহিরুল ইসলাম প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া করোনার ত্রাণ সামগ্রী ইউনিয়নের হতদরিদ্রদের মাঝে না দিয়ে তার ব্যক্তিগত স্বচ্ছল লোকদের মাঝে বিতরণ করছেন যাদের মধ্যে করোনার ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে তারা ওএমএস কার্ডধারী

ভিজিএফ, ভিজিডি ওএমএস কার্ডধারীতে সরকারের দেওয়া ত্রাণ বিতরণ করা নিষেধ থাকলেও  ওই ইউপির নিজস্ব লোক শাহজাহান মিয়া, গিয়াস উদ্দিন, আছিরন বেগম, জয়তুন খাতুনকে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিচ্ছেন অথচ এরা প্রতিমাসেই ১০টাকা কেজি মূল্যে ৩০কেজি চাল ডিলারের কাছ থেকে উত্তোলন করছেন তবে ৫নং ওয়ার্ডে যারা করোনায় খুব সংকটে আছে তাদের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরন না করে শুধুমাত্র তাকে যারা ভোট দিয়েছে তাদের মাঝেই দুবার ত্রাণ বিতরণ করছে বলেও এলাকাবাসী অভিযোগ করেছেন অপর দিকে চাল বিক্রি করার অভিযোগও রয়েছে তার বিরোদ্ধে

আটাবহ ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের শীতল সরকার আলেকজান জানান, আমরা গরীব অসহায় কোন কাজ করতে পারি না তবুও আমাদের ত্রাণ দেয় না মেম্বারকে যারা ভোট দিয়েছে তাদেরকে ত্রাণ দেয় যাদের কার্ড আছে ১০টাকা কেজি চাল পায় ওই ইউপি সদস্য তাদেরকেই বার বার   ত্রাণ দিচ্ছেন

আটাবহ ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী জালাল উদ্দিন জানান, বিএনপি ওই ইউপি সদস্য আমাদের সাথে কোন আলাপ না করে গোপনে তার নিজস্ব লোকের নাম দিয়ে ত্রাণ দিচ্ছে যাদের নামে ১০টাকা কেজি চালের কার্ড আছে তাদেরকেই ওই ত্রাণ সামগ্রী দেওয়া হয়েছে

আটাবহ ইউনিয়ন পরিষদ ৫নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য জহিরুল ইসলাম লিটন জানান, সবাইকে দিয়ে যে চাল বেশি হয়েছে সেগুলো আমার কারিং খরচ আছে তাই বিক্রি করেছি

কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী হাফিজুল আমিন জানান, একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে

আপনার মতামত লিখুন :