শিবচরে নতুন করে করোনা শনাক্ত হওয়ায় চিন্তার ভাঁজ

প্রকাশিত : ২৯ এপ্রিল ২০২০

মাদারীপুর প্রতিনিধি : মাদারীপুর জেলার শিবচরে নতুন করে এক নারী করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় স্বস্তির আকাশে যেন কালো মেঘের ছায়া দেখা দিয়েছে গত এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে কোন রোগী সনাক্ত না হওয়ায় এক ধরনের স্বন্তি দেখা দিয়েছিল শিবচরের জনসাধারনের মনে  তবে গত ২২ এপ্রিল করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া এক মহিলার নমুনা রিপোর্টে করোনা পজেটিভ এবং সোমবার রাতে উপজেলার কাঁঠালবাড়ী এলাকার এক নারীর নমুনায় করোনা পজেটিভ আসলে স্বস্তির জায়গা দখল করে নেয় শংকায় নতুন করে আবারো করোনায় সনাক্তের খবরে স্থানীয়দের সাথে আলাপ করলে তারা এমনটা প্রকাশ করেন

কাঁঠালবাড়ী ঘাট এলাকার এক কলেজছাত্র জানান, বেশ কিছুদিন ধরেই দেখা যাচ্ছিল শিবচরে কেউ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে না স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে এমনটাই দেখছিলাম এবং তাতে করে একটা স্বস্তি অনুভব করছিলাম কিন্তু হঠাৎ করেই আবার করোনা সনাক্ত হওয়ায় শংকা রয়েই যাচ্ছে সরকারি নির্দেশনা যথাযথভাবে মেনে চলাই উচিত'

আরেক ব্যক্তি জানান, শিবচর লকডাউন করোনা প্রতিরোধে সব সময় বাড়িতেই থাকছি অতি প্রয়োজন ছাড়া কোথাও যাইই না এর মধ্যে কিছুদিন যাবৎ নতুন করে করোনায় আক্রান্তের কোন খবর ছিল না বেশ স্বস্তিতে ছিলাম ভেবেছিলাম আরো কিছুদিন লকডাউনে থাকলে পরিস্থিতি ভালো হয়ে যাবে কিন্তু হঠাৎ করেই আক্রান্তের খবরে স্বস্তি উবে গেছে!'

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত হওয়ার পর গত ১৮ মার্চ উপজেলা প্রশাসন উপজেলার করোনা আক্রান্ত রোগী থাকায় পৌরসভার ২টি ওয়ার্ড, পাঁচ্চর ইউনিয়নের ১টি গ্রাম বহেরাতলা ইউনিয়নের ১টি গ্রামসহ চারটি এলাকাকে লকডাউন ঘোষণা করে মূলত ওই চারটি এলাকাতে তখন করোনা রোগী ছিল এবং চারটি এলাকাই ইতালী ফেরত প্রবাসী অধ্যুষিত

এরপরে প্রথমবার করোনায় আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হওয়ার পর আবারো করোয়া আক্রান্ত হলে গত এপ্রিল সংক্রামন ঠেকাতে পুরো উপজেলা লকডাউনের ঘোষণা দেয় জেলা প্রশাসন উপজেলার সাথে অন্যান্য স্থানের প্রবেশ পথ বন্ধ করে দেয়া হয় জনসমাগম নিয়ন্ত্রনে পুলিশ, ্যাব সেনাবাহিনীর টহল বাড়তে থাকে

এরপর গত ১৯ তারিখ রবিবার পুনরায় আক্রান্ত হওয়া জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরে এবং এরপর প্রতিদিনই পরীক্ষার জন্য মাদারীপুর থেকে ঢাকায় পাঠানো নমুনার রিপোর্টে শিবচরের কাউকে পজেটিভ পাওয়া যায়নি এক প্রায় সপ্তাহ পর গত ২৬ ২৭ তারিখ পাওয়া রিপোর্টে উপজেলায় নতুন করে আরো দুইজনের করোনা সনাক্ত হয় এর মধ্যে একজনের মারা যাওয়ার তিনদিন পর করোনা সনাক্ত হয় করোনা সনাক্ত হওয়ায় দুই এলাকাতেই বেশ কিছু পরিবারকে লকডাউন করেছে প্রশাসন

শিবচর উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, গত রবিবার উপজেলার কুতুবপুরে মারা যাওয়া এক মহিলার করোনা পজেটিভ রিপোর্ট এলে ওই গ্রামের ৫০ টি পরিবারকে লকডাউন করে রাখা হয় এছাড়া মঙ্গলবার কাঁঠালবাড়ী এলাকায় আরো এক মহিলার করোনা পজেটিভ সনাক্ত হলে তাদের বাড়িসহ আশেপাশের বেশ কিছু বাড়ি লকডাউন করা হয়

উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার কল্যান কর্মকর্তা শশাঙ্ক ঘোষ বলেন, ‘সোমবার রাতে পাওয়া রিপোর্টে করোনায় আক্রান্ত ওই নারীকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে তিনি কিছুদিন পূর্বে মুন্সিগঞ্জের বিক্রমপুর থেকে শিবচরে তার বাড়িতে আসেন আসার পরই তিনি সর্দিজ্বরে ভুগেন গত ২৪ তারিখ তার নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হলে ২৭ তারিখ রাতে রিপোর্ট এলে আমরা করোনা পজেটিভ পাই

জেলা সিভিল সার্জন ডা. শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘সবগুলো উপজেলার নমুনা একত্র করে আমরা একদিন পর পর ঢাকায় পাঠাই সেক্ষেত্রে রিপোর্টও একদুই দিন পর পর আসে

উল্লেখ্য, গত ২০ মার্চ লকডাউনের পর থেকেই স্থানীয় সংসদ সদস্য, জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ নূরআলম চৌধুরীর নির্দেশে শিবচর দরিদ্র, হতদরিদ্র পরিবার, দিনমজুর, খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে পর্যন্ত প্রায় ৪০ হাজর পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী দেয়া হয়

 

আপনার মতামত লিখুন :