করোনা মোকাবেলায় জীবনবাজি রেখে লড়ছেন জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ

প্রকাশিত : ২৬ এপ্রিল ২০২০

চীনের হুবেই প্রদেশের জনবহুল শহর উহান থেকে শুরু করে সমগ্র বিশ্বকে ক্ষত বিক্ষত করছে অদৃশ্য ঘাতক করোনা। আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশ প্রতিনিয়ত লড়াই করছে এই অদৃশ্য ঘাতকের বিরুদ্ধে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঘরে থাকাটাই এ লড়াইয়ের প্রধান অস্ত্র। প্রাণঘাতী করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি থেকে সাধারণ মানুষদের রক্ষার জন্য যারা সর্বস্ব দিয়ে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন আমরা তাদের সম্মান করে বলিÑ ফ্রন্ট লাইন ফাইটার বা সামনের সারির যোদ্ধা। করোনাকালে আরও মানবিক হয়ে উঠা তেমনি একজন ফ্রন্ট লাইন ফাইটার বা সামনের সারির যোদ্ধা লক্ষ্মীপুর জেলার বিশিষ্ট সমাজ সেবক কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ। দেশে করোনা আক্রান্ত প্রথম রোগি পাওয়ার পর থেকেই লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর পৌর আওয়ামী লীগের এই আহবায়ক রাজনৈতিক ও সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে সচেতনতামূলক কাজ করে আসছেন। বিশেষতঃ গত ১২ এপ্রিল থেকে লক্ষ্মীপুর জেলা অনির্দিষ্টকালের জন্য লকডাউন ঘোষণা করা হলে অসহায় ও দুস্থ্য মানুষদের কথা বিবেচনা করে কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ অদ্যবধি তার সবটুকু সামর্থ দিয়ে মানুষের পাশে থেকে সেবামূলক কাজ করে যাচ্ছেন। নিজের ব্যবহার করা গাড়িসহ নিজ অর্থায়নে আরও কয়েকটি ভাড়া গাড়ি সার্বক্ষণিক প্রস্তুত থাকছে প্রত্যান্ত এলাকায় অসুস্থ্য রোগিদের বহন কাজে। এছাড়াও ব্যক্তি উদ্যোগে অসহায় পরিবারগুলোর কাছে যথাসময়ে পৌঁছে যাচ্ছে কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ’র উপহার প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী। ইতোমধ্যেই রমজান উপলক্ষে উপহার হিসেবে শত শত ঘরে পৌঁছানো হয়েছে ইফতার ও খাদ্য সামগ্রী। এ প্রসঙ্গে  রাজনীতিবিদ ও সমাজ সেবক কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ বলেন,  আজ সময় এসেছে মানবিক কারণেই মানুষের পাশে দাঁড়ানোর। যাদের সামর্থ আছে তারা সকলেই যেন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে তাদের নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করেন।
করোনাকালের এমন দুঃসময়ে লক্ষ্মীপুর জেলার একজন কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ হতে পারেন অনেক অনেকের দৃষ্টান্ত।

আপনার মতামত লিখুন :