শেরপুরে একজনের করোনা শনাক্ত, জেলা ব্যাপী লকডাউন

প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল ২০২০

গত ২৪ ঘন্টায় ৪২জনের নমুনা ১জনের করোনা ধরা পড়ে বলে শনাক্ত করেন জেলা সিভিল সার্জন ডাক্তার আনোয়ারুর রউফ। শানক্তকৃত ব্যক্তি ঝিনাইগাতী উপজেলার নাম হারুনুর রশিদ। এছাড়া সোমবার ৫ উপজেলা থেকে নকলায় ৮জন, শেরপুরে ৫জন, নালিতাবাড়ীতে ৩জন, ঝিনাইগাতীতে ৭জন, শ্রীবর্দীতে ৪জনের নমুনা পাঠানো হয়। এদিকে নকলা উপজেলার মেদিরপাড় গ্রামের মৃত হাবেজ আলীর ছেলে খুরশেদ আলম ৩৫) ঢাকায় মারা গেছে। তবে লাশ গ্রামের বাড়ি দাফন করার আগে সেনাবাহীনি, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুর রহমান, উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মজিবুর রহমান, খোরশেদের বাড়ি আত্মিয় স্বজনকে জিজ্ঞাসা বাদ করেছেন। তারা বলছেন হৃদ যন্ত্রের ক্রীয়া বন্ধ হয়ে মারা যায়। লাশ বাহী ১২জনকে নির্বাহী অফিসার জাহিদুর রহমানও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা লকডাউনের আওতায় নিয়ে এসেছেন। বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে ইউনিয়ন চেয়ারম্যানদের জরিপে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী নকলায় ৯টি ইউনয়িন একটি পৌরসভায় বিদেশ ও ঢাকা থেকে প্রায় ৩হাজার লোকের আগমন ঘটেছে। এখানে নকলার ছোট বড় ৬০টি সড়ক, ৫শহ¯্রাধিক দোকান পাট, প্রায় ৬০ হাজার বাড়িঘর লকডাউনের আওতায় পড়েছে। তবে সন্ধা ৬ টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত শতভাগ লকডাউনের আওতায় পড়েছে। 

আপনার মতামত লিখুন :