লক্ষীপুরে সাড়ে ৩ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দিলেন সাবেক বিমানমন্ত্রীর

প্রকাশিত : ১১ এপ্রিল ২০২০

জাহাঙ্গীর লিটন,  লক্ষীপুর প্রতিনিধিঃ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে  লক্ষীপুরে নিজ নিজ বাড়িতে অবস্থান করা কর্মহীন প্রায় সাড়ে ৩ হাজার দরিদ্র পরিবারগুলোর মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছে সাবেক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল। তিনি লক্ষীপুর-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য। এছাড়া জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ জেলায় খাদ্য সহায়তা অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল।
সরেজমিনে দেখা যায়, আজ শনিবার ১৪তম দিনের মতো লক্ষীপুর-৩ (সদর) আসনের প্রত্যান্ত অঞ্জলের অসহায়, দুঃস্থ, কর্মহীন, নিম্মবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের মাঝে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীসহ চাল বিতরণ করা হয়। এ সকল হতদরিদ্র লোকজনের মাঝে সাবেক বিমানমন্ত্রী শাহজাহান কামালের পক্ষ থেকে তার এপিএস ও সাবেক জেলা যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক মোঃ বায়েজীদ ভূঁইয়া রাস্তায় হেঁটে হেঁটে এবং মানুষের বাসায় বাসায় গিয়ে তাদের নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী পৌছে দেন।
ত্রাণ বিতরণ বিষয়ে সাবেক মন্ত্রী ও লক্ষীপুর-৩ আসনের সাংসদ একেএম শাহজাহান কামাল বলেন, সরকারী সিদ্ধান্ত মোতাবেক নিজেদের সুস্বাস্থ্য রক্ষায় নাগরিকরা নিজ নিজ বাসায় অবস্থান করছে। শ্রমজীবি দরিদ্র মানুষজনদের জন্য সরকার পর্যাপ্ত পরিমানে খাদ্য সহায়তা বরাদ্ধ দিচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় মানুষের বাড়ি বাড়ি খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। লক্ষীপুর-৩ আসনে আমার পক্ষ থেকে শনিবার পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৩ হাজার অসহায় ঘরবন্দি পরিবারের কাছে খাদ্য শস্য ও নগদ অর্থ সহায়তা বিতরণ করা হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বিবেচনা করে ৩ হাজার হ্যান্ড গøাভস, ১০ হাজার মাস্ক, ৫ হাজার হ্যান্ড স্যাটিটাইজার ও ২ হাজার সাবান বিতরণ করেছি। এ জেলার স্বাস্থ্যকর্মী, ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও সাংবাদিকদের জন্য  ২’শ ৫০টি পিপিই প্রদান করা হয়েছে। মুলত করোনা ভাইরাস আতংকে যারা কাজে যেতে পারছে না তাদের বাড়ী বাড়ী খাদ্য শস্য সহায়তা পৌছে দেয়াই হচ্ছে আমার মূল লক্ষ্য, কেউ যাতে বলতে না পাওে সরকার তাদেও পাশে নেই।
তিনি বলেন, আগামী দিনগুলোতেও সরকার জনসাধারণের পাশে থাকবে এবং খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেয়া হবে। এই ধরনের ক্রান্তিলগ্নে সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবানদেরও এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি। 

আপনার মতামত লিখুন :