শ্রীপুরে মাটি কাটার শ্রমিকের মৃত্যু

প্রকাশিত : ১১ এপ্রিল ২০২০

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃগাজীপুরের শ্রীপুরে মাটি কাটার শ্রমিক কফিল উদ্দিন (৪৫) ঠান্ডা-জ¦র নিয়ে মারা গছেন। কফিল উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের নগর হাওলা গ্রামের মৃত ইয়াছিন উদ্দিনের ছেলে। শুক্রবার রাত ৮টায় তিনি নিজ বাড়িতেই মারা যান।

নিহতের চাচাতো ভাই মফিজ উদ্দিন জানান, কফিল সড়কে মাটি কাটার কাজ করে। দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব থাকায় রাতে মাটি কাটার কাজে যায়। গত ৫/৬ দিন আগে কাজ শেষে রাত ৩টার দিকে বাড়ি আসে। তখন জানতে পারি কাজ শেষে আসার পথে জঙ্গলে হঠাৎ ভয় পায় কফিল। এরপর সে আর কাজে যায়নি, বাড়িতেই অবস্থান করে। বাড়িতে থেকেই কবিরাজি চিকিৎসা ও স্থানীয় ফার্মেসী থেকে ওষুধ এনে খায়। গতকাল শুক্রবার (১০ এপ্রিল) সন্ধ্যার আগ মূহুর্তে সে অসুস্থ হয়ে যায়। পরে রাত ৮টা ১মিনিটে মারা যায়। তবে তার কোনা জ¦র, শর্দি, ঠান্ডা-কাশি ছিল না বলে তিনি জানান। স্থানীয়রা বলছে কফিল উদ্দিন দীর্ঘদিন যাবত ঠান্ডা-জ¦রে ভুগছিলেন। দেশব্যাপী করোনা প্রদুর্ভাবের কারণে বাড়ির বাহিরে চিকিৎসা নিতে যাননি। গাজীপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার আব্দুল আজিজ জানান, কফিল উদ্দিন জ¦র, শর্দি, ঠান্ডা-কাশি ছিল না। রাতে কাজ শেষে বাড়ি যাওয়ার পথে সে ভয় পেয়েছে। সেই ভয় থেকে টেনশনে তার মৃত্যু হতে পারে। শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: প্রণয় ভূষন দাস জানান, এলাকাবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে রাতেই ওই মৃত ব্যাক্তির বাড়িতে গিয়ে তার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকার রোগতত্ত¡, রোগ নিয়ন্ত্রন ও গবেষনা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়েছে। পাশাপশি পরিবারের সদস্যদের শতভাগ হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। 

আপনার মতামত লিখুন :