কুষ্টিয়ায় শিশু ধর্ষণ মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

প্রকাশিত : ১০ সেপ্টেম্বর ২০২০

আরিফুজ্জামান, কুষ্টিয়া:

কুষ্টিয়া খোকসা থানার শিশু ধর্ষণ মামলায় ছানার মাঝি(৩৮) নামে প্রতিবেশী যুবকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ৫০হাজার টাকা জরিমানা আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহষ্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক মুন্সী মো: মশিয়ার রহমান জনাকীর্ণ আদালতে আসামীর উপপস্থিতিতে এই রায় ঘোষনা করেন।
সাজাপ্রাপ্ত হলেন– খোকসা উপজেলার আমবাড়িয়া পূর্বপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত: আবেদ আলীর ছেলে ছানার মাঝি(৩৮)।

 

 

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ২০ জুন সন্ধা সাড়ে ৬টায় এজাহারকারী শিশুকণ্যা (১০) বাড়ির পাশ্ববর্তী মাঠে ছাগল আনতে যায়। এসময় পূর্ব থেকে ওত পেতে থাকা আসামী ছানার মাঝি শিশুটিকে জোরপূর্বক মুখ চেপে ধরে পাশ্ববর্তী কলা বাগানে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করে। এসময় শিশুটি আর্তচিৎকারে আশপাশের লোক জড়ো হলে আসামী আহত শিশুটিকে মাঠের মধ্যে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। এই এঘটনায় শিশুটির পিতা পরদিন ২১জুন ২০১৯ তারিখে খোকসা থানায় আসামী ছানার মাঝির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর দ:বি: ৯(১)ধারায় অভিযোগ এনে মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত শেষে ৩১/০৭/২০১৯ তারিখে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন পুলিশ।

কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের সরকারী কৌশুলী এ্যাড. আব্দুল হালিম জানান, খোকসা থানার এই শিশু ধর্ষণ মামলার একমাত্র আসামী ছানার মাঝির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন ও দীর্ঘ স্বাক্ষ্য শুনানী শেষে আসামীর বিরুদ্ধে আনীত নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর দ:বি: ৯(১)ধারায় অভিযোগ সন্দেহাতীত ভাবে প্রমানিত হওয়ায় বিজ্ঞ আদালত যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ৫০হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরও ১বছরের কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন।

আপনার মতামত লিখুন :