মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় পুলিশের মামলা

প্রকাশিত : ৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার পশ্চিম তল্লা বায়তুস সালাত জামে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় ফতুল্লা থানা পুলিশ মামলা করেছে। অবহেলার কারণে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ও হতাহতের ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশ মামলায় উল্লেখ করেছে। মামলায় অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। আজ রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) সকালে ফতুল্লা মডেল থানার এসআই হুমায়ন কবির বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

এদিকে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ও হতাহতের ঘটনায় তিতাস, বিদ্যুৎ ও মসজিদ কমিটির অবহেলা রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখবে ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি। যাদের অবহেলায় ভয়াবহ এ ঘটনা ঘটেছে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসেন মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পশ্চিম তল্লা বায়তুস সালাত জামে মসজিদের ভয়াবহ বিস্ফোরণ অবহেলায় ঘটেছে। যার কারণে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। আসামি অজ্ঞাত করা হয়েছে। যাদের অবহেলায় এ ঘটনা ঘটেছে, তদন্তের রিপোর্টে যারা দোষী হবে তারাই এ মামলার আসামি হবে। তাদের এ মামলায় আইনের আওতায় আনা হবে।

এদিকে বিস্ফোরণের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।  বিস্ফোরণের ঘটনায় পৃথক তিনটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, তিতাস গ্যাস ও নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন আলাদাভাবে এসব কমিটি গঠন করে। শুক্রবার বিস্ফোরণের পরদিন সকালে এসব কমিটি গঠন করা হয়। নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিম জানান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক খাদিজা তাহেরী ববিকে আহ্বায়ক করে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই তদন্ত কমিটিকে আগামী ৫ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আর তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি করেছে বলে কোম্পানির নারায়ণগঞ্জ অফিসের ডিজিএম মফিজুল ইসলাম জানান। কমিটির প্রধান করা হয়েছে তিতাস গ্যাসের ঢাকা অফিসের মহাব্যবস্থাপক আবদুল ওহাবকে। অপরদিকে ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (অপারেশন) লেফটেন্যান্ট কর্নেল জিল্লুর রহমানকে আহ্বায়ক করে গঠিত চার সদস্যের তদন্ত কমিটিকে ১০ কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :