সীতাকুণ্ডে পরিবেশ আইন অমান্য করে ভরাট করা হচ্ছে শতবর্ষী পুকুর

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারি ২০২২

কামরুল ইসলাম দুলু (সীতাকুণ্ড) চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার ৯নং ভাটিয়ারী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড কদমরসুল এলাকায় পরিবেশের আইন অমান্য করে ভরাট করা হচ্ছে শতবর্ষী পুকুর। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন শতবর্ষী ছালদার পুকুরখ্যাত এই পুকুরে বালি ফেলে ভরাট করছে প্রভাবশালী মহল। পুরাতন পুকুরটি ভরাট হয়ে পড়ায় সুপেয় পানি ও পরিবেশের ভারসাম্য নষ্টের আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। জানা যায়, শাহীন নামে স্থানীয় এক প্রভাবশালী ব্যক্তি পুকুরটি ভরাট করছেন বলে জানা যায়। সরেজমিন দেখা যায়, কদমরসুলে শতবর্ষী এ পুকুরটিতে বালি ফেলে ভরাট কাজ সারছেন প্রভাশালীরা।

পরিবেশের ভারসাম্যের কথা না ভেবে আইনের তোয়াক্কা না করে দিনে-দুপুরে চলছে পুকুর ভরাট। স্থানীয়রা বলেন, এলাকার হাজার-হাজার মানুষের অসুবিধার কথা না ভেবেই পুরাতন একমাত্র পুকুরটি ভরাট করছে স্থানীয় প্রভাবশালী লোকজন।

পানির চরম সঙ্কটের মধ্যে স্থানীয়দের চাহিদা পূরণ করছে পুকুরটি। এব্যাপারে সীতাকুণ্ড উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আশরাফুল আলম বলেন, প্রাকৃতিক জলাধার সংরক্ষণ আইন-২০০০ অনুযায়ী, কোনো পুকুর, জলাশয়, নদী, খাল ইত্যাদি ভরাট করা বেআইনি।

কোনো ব্যক্তি এ বিধান লঙ্ঘন করলে আইনের ৮ ও ১২ ধারা অনুযায়ী পাঁচ বছরের কারাদণ্ড বা অনধিক ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। ব্যক্তি মালিকানার পুকুরও চাইলেই ভরাট করে ফেলা যাবে না। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন :