সীতাকুণ্ডের শীতলপুর থেকে বিরল প্রজাতি শঙ্খিনী সাপ উদ্ধার, পাহাড়ে অবমুক্ত

প্রকাশিত : ৩০ এপ্রিল ২০২১

কামরুল ইসলাম দুলু, সীতাকুণ্ড ( চট্টগ্রাম):

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের শীতলপুর থেকে পাচার করার সময় বিরল প্রজাতি শঙ্খিনী সাপ উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাত ১১টার সময় উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের শীতলপুরস্থ দক্ষিন মোল্লাপাড়া এলাকার এই সাপটি উদ্ধার করে ফৌজদার হাট বিট কাম চেক ষ্টেশনের কর্মকর্তারা।

চট্টগ্রাম উত্তর বন বিভাগ কুমিরা রেঞ্জ কর্মকর্তা শাহান শাহ নওশাদ জানান,বৃহস্পতিবার রাতে শীতলপুর এলকার একটি দোকানের সামনে সাপটি একটি নেট দিয়ে আটকানো অবস্থায় পাওয়া যায়। কয়েজকন ব্যক্তি সাপটি ধরে বিক্রি করার পরিকল্পনা করছিলেন এমন গোপনে সংবাদ পেয়ে আমরা তাৎক্ষণিক সেখানে গিয়ে পরিত্যক্ত অবস্থায় সাপটি উদ্ধার করি। এসময আমরা আসার খবর পেয়ে সাপটি রেখে ঔই ব্যক্তিরা পালিয়ে যায়।

জানা যায়, এই সাপের ইংরেজি নাম ব্যান্ডেড ক্রাইট। এই সাপটি এলাপিডি পরিবারভুক্ত এক প্রকার বিষধর সাপ। এরা ছোট প্রজাতির অন্য সাপ খেয়ে জীবন ধারণ করে। তিনি আরও জানান, শঙ্খিনী সাপ নিশাচর প্রাণী। এক সময় এ সাপটি সচরাচর জমি বা খেতের আলে দেখা যেতো। তবে জমিতে অতিরিক্ত কীটনাশক ব্যবহারের ফলে এ সাপটির অস্তিত্ব বিলীন হয়ে গেছে। সে আহার হিসেবে সব ধরনের সাপ খেতেই অভ্যস্ত। আর এই সাপটি অন্য কোনও খাবার খায় না। বাংলাদেশের পরিবেশ উপযোগী অন্যতম সুন্দর একটি সাপ হচ্ছে শঙ্খিনী সাপ। এর শান্ত স্বভাবের কারণে যারা সাপ সম্পর্কে ধারণা রাখেন তাদের কাছে এটি বেশ প্রিয়। অতি সুন্দর ও চমৎকার রঙে সজ্জিত এই সাপের মাথা আকারে বেশ বড়, সারা শরীরজুড়ে কালো ও হলুদ ডোরা।

এদিকে রাতেই স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ বাবলুর উপস্থিতিতে বন বিভাগের কর্মকর্তারা বিরল প্রজাতি শঙ্খিনী সাপটি পাহাড়ে অবমুক্ত করা হয়।

 

আপনার মতামত লিখুন :