মা-মেয়ের আপত্তিকর দৃশ্য পর্ণসাইটে আপলোডের হুমকি : গ্রেফতার ২

প্রকাশিত : ৮ এপ্রিল ২০২১

চট্টগ্রাম ব্যুরো :

 

ভুক্তভোগী এক মা ও তার মেয়ের আপত্তিকর দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করে সেগুলো পর্ণসাইটে আপলোডের হুমকি দিয়ে টাকা দাবি করে আসছে দুই তরুণ। এমন অভিযোগ পেয়ে চট্টগ্রাম নগরীর পাঁচলাইশ প্রবর্তক সংঘের পাহাড়ে ও নন্দনকানন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এ দুই তরুণকে গ্রেফতার করে করে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, অভিষেক সেন শর্মা (২১) সে নগরীর বেসরকারি ইন্ডিপেডেন্ট ইউনিভার্সিটির বিবিএ’র ছাত্র ও আদিত্য বড়ুয়া (১৮)  সে নগরীর সেন্টপ্লাসিড স্কুল অ্যান্ড কলেজের এইচএসসির শিক্ষার্থী।

 

গত বুধবার সকালে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়। মামলা সূত্রে জানা যায়, কলেজ পড়ুয়া ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থী ও তার মায়ের ম্যাসেঞ্জারে এবং হোয়াটসঅ্যপে এক যুবক ভিডিও বার্তা পাঠায় গত ২৯ মার্চ রাতে। এতে দেখা যায় তাদের দুজনের পোশাক পাল্টানোর কিছু আপত্তিকর দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে। এসময় ওই যুবকের সাথে যোগাযোগ করলে সে এ ভিডিও আরো বিভিন্ন জনের ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়েছে জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও পর্নসাইটে আপলোড দেওয়ার হুঁমকি দিয়ে ৯ হাজার টাকা দাবি করে। পরে কলেজ পড়ুয়া ওই ছাত্রী ও তার মা নগরীর পাঁচলাইশ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন এবং কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটে এসে অভিযোগ করেন।

অভিযোগ পেয়ে টিম বিশেষ অভিযানে বুধবার সকালে দুজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। সিমএমপি কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আসিফ মহিউদ্দীন দুজনকে গ্রেফতারের তথ্যটি নিশ্চিত করে বলেন, অভিযোগের সূত্র ধরে আমাদের টিম প্রথমে নগরীর পাঁচলাইশ থানা প্রবত্তক সংঘের পাহাড়ে অভিযান চালিয়ে মামার বাসা থেকে অভিষেককে গ্রেফতার করি।

 

এসময় তার মোবাইল ফোন তল্লাশী করলে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। পরে আপত্তিকর দৃশ্যের ওই ভিডিওসহ মোবাইল ফোনটি জব্দ করা হয়। এরপর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে জানায় আদিত্য নামে আরেক তরুণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ফেইক আইডি খুলে ভিডিওটি বিভিন্ন জনের ম্যাসেঞ্জারে ছড়িয়ে দিচ্ছে। পরে নগরীর কোতোয়ালি থানা ১ নং নন্দনকানন এলাকার নিজ বাসায় অভিযান চালিয়ে আদিত্য বড়ুয়াকে গ্রেফতার করা হয়।

 

এসময় ফেসবুকের ফেক আইডিটিও খোলা পাওয়া যায়। জিজ্ঞাসাবাদে দুজনেই জানিয়েছে বাসার জানালা দিয়ে গোপনে মা-মেয়ের পোশাক পাল্টানোর ভিডিও মোবাইলে ধারণ করে ওই কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীর কাছ থেকে টাকা হাতানোর পরিকল্পনা করেছিলো তারা। গ্রেফতার দুজনের বিরুদ্ধে পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে-১২ এর বিভিন্ন ধারায় পাঁচলাইশ থানায় মামলা করা হয়েছে জানিয়ে ওই মামলায় দুজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে জানায় অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আসিফ।

আপনার মতামত লিখুন :