চট্টগ্রামে গণপরিবহণে নৈরাজ্য ঠেকাতে মাঠে ম্যাজিস্ট্রেট

প্রকাশিত : ৭ এপ্রিল ২০২১

চট্টগ্রাম ব্যুরো :

অতিরিক্ত যাত্রী, বেশি ভাড়া আদায় ও সিটি কর্পোরেশনের বাইরে যাত্রী পরিবহনের অপরাধে ৫ বাস চালক ও এক মিনিবাস চালককে অর্থদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। দক্ষিণ চট্টগ্রামের প্রবেশ মুখ নগরীর শাহ আমানত সেতু (নতুন ব্রিজ),জিইসি মোড় ও মুরাদপুর এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে জরিমানা করেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক। গতকাল বুধবার (৭ এপ্রিল) সকাল ১১টা থেকে দুপুর দুইটা পর্যন্ত চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্দ্যেগে পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৬ চালকের কাছ থেকে মোট ৮ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

 

পাশাপাশি মাস্ক পরিধান না করার কারনে ১০ জন যাত্রীকেও অর্থদন্ড করা হয় এবং ভবিষ্যতে সরকারি বিধিনিষেধ প্রতিপালন করার জন্য সতর্ক করা হয়।

 

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক বলেন, বুধবার থেকে মহানগর এলাকায় গণ পরিবহন চলাচল করার কথা থাকলেও সরজমিনে দেখা যায় কিছু চালক সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে মহানগরীর বাইরেও বিভিন্ন জেলা উপজেলায় যাত্রী পরিবহন করছে। তাছাড়া গাদাগাদি করে যাত্রী নিচ্ছেন।

 

যার ফলে ৫ বাস চালক ও এক মিনি বাস চালককে অর্থদন্ড দেওয়া হয়। তিনি আরও বলেন, মহানগরীতেও অনেক বাসে সিটের চেয়ে বেশি যাত্রী পরিবহনের বিষয়টি দেখা যায় এবং বেশি ভাড়া নেয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়। তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে কয়েকজন বাস চালকে অর্থদন্ড করা হয় এবং সতর্ক করা হয় যাতে ভবিষ্যতে সরকারি বিধিনিষেধ প্রতিপালন করে। অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

আপনার মতামত লিখুন :