মিরসরাই পৌরসভা নির্বাচনী জের, আ.লীগ নেতার দুই পা থেতলে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা

প্রকাশিত : ২ মার্চ ২০২১

মিরসরাই প্রতিনিধি:

মিরসরাই পৌরসভা কাউন্সিলর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ওয়ার্ড আ.লীগের এক সাবেক সভাপতির উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলায় ওই আ.লীগ নেতার দুই পা ভেঙ্গে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। আহতের নাম জয়নাল আবেদিন (৫২)। তিনি মিরসরাই পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাবেক সভাপতি ও কাউন্সিলর প্রার্থী নিজাম উদ্দিনের বড় ভাই। গত ২৮ ফেব্রুয়ারী পৌরনির্বাচনে তার ছোট ভাই নিজাম উদ্দিনের পক্ষ হয়ে কাজ করায় এই হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করে পরিবার।

গত সোমবার দুপুরে পারিবারিক কাজে বাজার করেতে গেলে তার উপর হামলা হয়। মিরসরাই পৌরবাজার এলাকার করিম মার্কেটের সামনে তার উপর অতরর্কিত হামলা করে মৃত ভেবে ফেলে চলে যায় সন্ত্রাসীরা। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। আহত জয়নাল বর্তমানে চট্টগ্রাম সরকারি হাসপাতাদের পঙ্গু বিভাগে চিকিৎসাধিন আছেন।

আহতের ভাই কাউন্সিলর প্রার্থী নিজাম উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, আমি কাউন্সিলর প্রার্থী হওয়ার পর থেকে কমিশনার রাজু ও তার লোকজন প্রথম থেকেই বিভিন্ন ভাবে ভয় ভিতি দেখিয়ে আসছে। বেশ কয়েকবার হামলার ঘটনাও ঘটিয়েছে।

সর্বশেষ আমার বড় ভাই সাবেক ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি জয়নাল আবেদিন গত সোমবার দুপুরে বাজার করার জন্য মিরসরাই বাজারে গেলে কাউন্সিলর রাজুর সরবরাহকৃত অস্ত্র দিয়ে তার সন্ত্রাসী বাহিনী অতর্কিত হামলা চালায়। ভাইকে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম নিয়ে এসেছি তার প্রচুর রক্তের প্রয়োজন। এই বিষয়ে থানায় মৌখিক অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

রাজু কমিশনারকে আটকের ব্যাপারে জানতে চাইলে মিরসরাই থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান জানান, রাজু কমিশনার কে গ্রেফতার করা হয়নি তিনি নিজেই থানায় এসেছিলেন আবার চলে গেছেন। কে বা কাহারা জয়নাল আবেদিনের উপর হামলা করেছে তা তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করার জন্য তিনি থানায় এসেছিলেন। তবে হামলার ব্যপারে জানার জন্য কাউন্সিলর রাজুর ব্যবহৃত ফোন নাম্বারে সন্ধ্যা ৭টার দিকে বার বার কল করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

আপনার মতামত লিখুন :