দিনভর অভিযানে ৪৮ মামলা, চট্টগ্রামে বিনামূল্যের সরকারি ঔষধ ফার্মেসীতে!

প্রকাশিত : ২৯ এপ্রিল ২০২০

চট্টগ্রাম ব্যাুরো: ২৯ এপ্রিল চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পূর্ব গেইট এলাকার দুইটি ফার্মেসীতে অভিযান চালিয়ে বিনামূল্যের সরকারি ঔষধ ও অনুমোদনহীন ঔষধ জব্দ করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।বুধবার এ অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শিরিন আক্তার।

তিনি জানান, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পূর্ব গেইটের দুইটি ফার্মেসীতে প্রচুর আনরেজিস্টার্ড ঔষধ, সরকারি ঔষধ (বিক্রির জন্য নহে) পাওয়া গেছে। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে এসব ঔষধ জব্দ করে ড্রাগ এ্যাক্ট ১৯৪০ এর ১৮ এর বি ও সি ধারায় ২মামলায় ৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এদিকে ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তাহমিনা সারমিন খুলশীর ঝাউতলা বাজারে অভিযান চালিয়ে বেশি দামে পণ্য বিক্রি করায় এক মুদি দোকানদারকে, আরেক দোকানে নিম্নমানের খেজুর, সেমাই বিক্রি করায়, অননুমোদিতভাবে দোকান খুলে ব্যবসা করার কারণে বায়েজিদের আমিন কলোনি বাজারের ওয়ালটন দোকানকে ৬হাজার টাকা ও মাস্ক বিহীন অযথা ঘুরাঘুরির কারণে ২ জনকে ২শত টাকা জরিমানা করেন।

ম্যাজিস্ট্রেট সুরাইয়া ইয়াসমিন চট্টগ্রাম মহানগরীর বন্দর, ইপিজেড ও পতেঙ্গা এলাকায় অননুমোদিত দোকান খোলায় ৫টি দোকানকে ১১হাজার টাকা, মূল্য তালিকা না থাকায় ১ মুদি দোকানদারকে ১হাজার টাকা এবং অপর এক দোকানদার অতিরিক্ত মূল্যে পণ্য বিক্রয় করায় ৩হাজার টাকা জরিমানা করেন।ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে দোকান খালা রাখায় পাহাড়তলী, আকবরশাহ, হালিশহর ও ডবলমুরিং এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১টি সেলুনকে ৫শত টাকা, ২টি কাপড়ের দোকানদারকে ১ হাজার টাকা, ১টি জুতার দোকানকে ৫শত টাকা, ২টি টেইলরের দোকানকে ৬শত টাকা এবং ১টি ফার্নিচারের দোকানকে ৩ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন।

এছাড়া কর্ণফুলী মার্কেটের মেসার্স আল্লাহর দান স্টোরকে অধিক মূল্যে আদা ও রসুন বিক্রয়ের অপরাধে ৩হাজার টাকা, সামাজিক দূরত্ব না মানায় এক মোটরসাইকেল চালককে ৫শত টাকা জরিমানা করেন।জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী হাসান আদালত পরিচালনা করে নগরীর দেওয়ান বাজারে ১টি টেইলার্স ও ১টি সেলুনকে অপরাধে আড়াই হাজার টাকা এবং অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রির সত্যতা পাওয়ায় ৭টি প্রতিষ্ঠানকে সাড়ে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তৌহিদুল ইসলাম নগরীর রিয়াজুদ্দিন বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে সবজির দুটি বড় আড়তে মূল্যতালিকা না থাকায় ২ মামলায় ১১ হাজার টাকা, ফলমন্ডির ৫ ফল ব্যবসায়ীকে মাল্টা জাতীয় ফলের মূল্যবৃদ্ধি করায় ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

ম্যাজিস্ট্রেট মো. উমর ফারুক পাহাড়তলী চাউলের আড়তে ও কর্নেল হাটে অভিযান পরিচালনা করে মূল্য তালিকা না থাকা ও অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রয় করায় ৯টি মামলায় ২২হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এছাড়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস.এম. আলমগীর, চট্টগ্রাম মহানগরের চকবাজার, সদরঘাট, বাকলিয়া ও কোতোয়ালি এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৬টি মামলায় ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। বুধবার মহানগরে দিনভর অভিযান চালিয়ে মোট ৪৮টি মামলায় ৫ লাখ ১৩ হাজার ৩শত টাকা জরিমানা করেন জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেটগণ।

আপনার মতামত লিখুন :