সরকারের কোষাগারের টাকা জনগণের দুঃসময়ে ব্যবহার করতে হবে:খসরু

প্রকাশিত : ২৭ এপ্রিল ২০২০

চট্টগ্রাম ব্যাুরো : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা আজকে কঠিন সময় অতিক্রম করছে। করোনাভাইরাসের কারণে যেখানে দিনে পনর হাজারের অধিক টেস্টিং হওয়ার কথা সেখানে হচ্ছে তিন হাজার মাত্র। গণস্বাস্থ্যের ট্রাস্টি ডাক্তার জাফরুল্লাহ চৌধুরী টেস্টিং কিট দিয়ে সরকারকে সহায়তার জন্য এগিয়ে এসেছে। কিন্তু তাকে সে কাজটি করতে দেওয়া হচ্ছে না। সরকার চিকিৎসকদের পর্যাপ্ত পিপিই দিতে পারে নাই।

তিনি আজ সোমবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে নাসিমন ভবনস্থ দলীয় কার্যালয়ে চট্টগ্রামে বিগত আন্দোলন সংগ্রামে গুম, খুন ও নির্যাতনের শিকার নেতাকর্মীদের পরিবারের মাঝে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ঈদ উপহার বিতরণ উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা ড্যাব ও জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন হাসপাতালে পিপিই দিয়ে সহায়তা করে যাচ্ছি। বিএনপি’র পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষের সহায়তার জন্য ৮৭ হাজার কোটি টাকার একটা অর্থনৈতিক প্যাকেজ দিয়েছি। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে যে প্যাকেজ দেওয়া হয়েছে সেখানে ব্যাংক ঋণের মাধ্যমে শুভঙ্করের ফাঁকি দেওয়া হয়েছে। এই ব্যাংক ঋণ দিয়ে সাধারণ মানুষের কোন উপকার হবে না।

যারা সরকারের অংশ হিসেবে কাজ করছে তারাই এই ব্যাংক ঋণ পাবে। এই সার্বিক ঋণের মাধ্যমে কোন সমস্যার সমাধান হবে না। এখানে সরকারের টাকা হচ্ছে জনগণের টাকা। সরকারের কোষাগারে যে টাকা আছে সেটা বাংলাদেশের জনগণের টাকা। এই টাকা জনগণের দুঃসময়ে ব্যবহার করতে হবে।

তিনি বলেন, এখন বাংলাদেশের মানুষের জীবন মরণ সমস্যা। এই কঠিন সময়ে কে কোন দল করে তা দেখে যদি দেশ চালানো হয় এর থেকে দুঃখজনক আর কিছু হতে পারে না। আমরা টাস্কফোর্স গঠনের মাধ্যমে সবাইকে নিয়ে জাতীয় ঐক্যমত গঠনের জন্য বার বার বলে আসছি। কিন্তু সরকার কেন শুনছে না সেটা তাদের ব্যাপার। আমরা সবাইকে নিয়ে একতাবদ্ধ ভাবে থাকতে চাই

আপনার মতামত লিখুন :