করোনা বিস্তারে মারাত্নক ঝুকি বাড়াচ্ছে ডিবিবিএল এর বারৈয়ারহাট বুথ!

প্রকাশিত : ২২ এপ্রিল ২০২০

মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি: ফেনির লালপুল থেকে বারৈয়ারহাট, মিরসরাই থেকে করেরহাট পর্যন্ত প্রায় সাত লাখ মুনুষের মাঝে করোনা ভাইরাস বিস্তারে মারাত্মক ঝুকি বাড়াচ্ছে ডাচবাংলা ব্যাংকের বারৈয়ারহাট ক্যাশ বুথ। বুধবার ( ২২ এপ্রিল) ১২ টায় উক্ত বুথ থেকে টাকা তুলতে গেলে এমন ঝুকি পূর্ণ দৃশ্য দেখা গেছে। এতদ অঞ্চলে ডাচবাংলা ব্যাংকের কোন শাখা না থাকায় প্রতিদিন শতশত লোক টাকা উত্তোলনের জন্য সামাজিক দূরত্ব ভেঙে ভিট জমাচ্ছে।

কোন প্রকার সতর্কতা ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছাড়াই ছোট্ট একটা কক্ষে ৭০ থেক ৮০ জন লোক গাদাগাদি করে দাড়িয়ে টাকা উত্তোলন করছে। ব্যবহার হচ্ছেনা কোন হ্যান্ড সেনিটাইজার, বেশিভাগ গ্রাহকের মুখে নেই ন্যুনতম মাস্ক। দরজায় নেই কোন সিকিউরিটি গার্ড একটু দূরে এক গ্রাহকের সাথে গল্পরত অবস্থায় পাওয়া গেলের তার হাতে মাত্র চার আঙুলে পাওয়া গেল ছেড়া এটকি গ্লাভসের সামান্য একটু অনেক অংশ।

এব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে ওই সিকিউরিটি বলেন আমার হাত পরিষ্কার আছে চার আঙুলে ছেড়া গ্লাভস শুধুমাত্র ওই সব গ্রাহকদের জন্য যারা নিজেরা টাকা তুলতে পারে না তাদের কে টাকা তুলে দেওয়ার জন্য। ব্যুথের দ্বায়িত্বে থাকা এককর্মকর্তা মোজাম্মেল হক তার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সকালে একবার সকল ম্যাশিন গুলো স্যাভলন দিয়ে পরিষ্কার করা হয়েছে। বুথে গ্রাহকদের হাত জীবাণু মুক্ত করার জন্য অন্য কোন ব্যবস্থা নেই।

এই ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিনের যোগাযোগ করাহলে, তিনি বলেন এটা খুবই ঝুকিপূর্ণ । আমি ম্যানেজারের সাথে কথা বলবো কিভাবে সচেতন করা যায়।

আপনার মতামত লিখুন :