ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে গতিহীন বন্যায় দুর্বিষহ জনজীবন

প্রকাশিত : ২৩ জুন ২০২২

আলমগীর হোসেন,বিজয়নগর প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার নিম্নাঞ্চলের গ্রামের ঘরবাড়ির বাসিন্দারা পানি বন্দী হয়ে গেছে। বর্ষাকালে অতি বৃষ্টি পাতে তিতাস নদী ও কাইজলা বিলের পানি বৃদ্ধির কারণে এই বন্যার প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। পানিতে বন্দী হয়ে থাকা অধিকাংশ পরিবার খেটে খাওয়া দিনমজুর। পানি বন্দি কয়েকটি পরিবারের অভিযোগ, এ পর্যন্ত তাদের কে কোন সহায়তা করা হয়নি।

উপজেলার ২ নং চান্দুরা ইউনিয়ন এর সাতগাঁও, আব্দুল্লাহপুর ও গুচ্ছগ্রামের প্রায় শতাধিক মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় আছে। তাদের জনজীবন এতই ব্যহত বলার ভাষা নেই, পারছে না নিজের খাবার জোগাতে, না পারছেন তাদের গৃহপালিত পশুদেরকে ঠিকমতো খাবার দিতে।

এদিকে মনিপুর চর ইসলামপুরের অবস্থা ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। মোটকথা বিজয়নগরের প্রত্যেকটা ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চলের গ্রাম গুলো কিছু-না-কিছু ক্ষতির সম্মুখীন।

কোন্ কোন্ এলাকায় স্কুলে পানি এবং মাঠে পানি শিক্ষার্থীরা স্কুল যেতে পারছে না।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহি অফিসার এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহমেদ ভোরের দর্পণকে বলেন, বন্যার পরিস্থিতি মোকাবেলায বিজয়নগরে বন্যার্তদের জন্য কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে, উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন চেয়ারম্যানকে সার্বক্ষণিক তদারকি করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন, যদি পরিস্থিতি খারাপের দিকে যায় আমরা সরকারের কাছ থেকে আরও বেশি ত্রাণ আনার চেষ্টা করব। অপ্রত্যাশিত বন্যা মোকাবেলায় সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী প্রস্তুত রয়েছি।

আপনার মতামত লিখুন :