নবীনগরে ভুয়া এনজিও হাতিয়ে নিল অর্ধকোটি টাকা

প্রকাশিত : ২ মার্চ ২০২১

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌরসভার নারায়ণপুর গ্রামে গ্রামীণ সেবা সংস্থা নামে গত ১৫ দিন পূর্বে প্রতিষ্ঠিত গ্রামীণ সেবা সংস্থা একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান ১০/১২ জনবল নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়। সংস্থাটি নবীনগর গ্রামে গ্রামে গিয়ে সাধারণ সরলমনা মহিলাদেরকে বিভিন্ন ঋণের প্রলোভন দেখিয়ে হাতিয়ে নিয়েছে প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা। ১৫ দিন পূর্বে প্রতিষ্ঠিত এনজিও টি মানুষকে ৫ লক্ষ, তিন লক্ষ ও দুই লক্ষ টাকা ঋণ দিবে বলে নাম রেজিস্ট্রেশন করেন। আর নাম রেজিস্ট্রেশন বাবদ প্রত্যেক গ্রাহকের কাছ থেকে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা করে নিয়েছে। গতকাল প্রত্যেক গ্রাহককে ঋণ দেওয়ার কথা ছিল।

গ্রাহকরা ঋণ নিতে অফিসে উপস্থিত হলে অফিসের একজন সহকারি ব্যতীত বাকিরা কেউ উপস্থিত ছিল না। সংস্থার ম্যানেজার পলাশ মিঞার সাথে যোগাযোগ করা হলে তাঁর মুঠোফোন নাম্বার বন্ধ পাওয়া যায়। বাড়ির মালিক হাবিবুর রহমান মিন্টু (পিতা নুরু মিয়া) এর সাথে কথা বলে জানা যায় গত ১৫ দিন পূর্বে প্রতিষ্ঠানটির নিকট বাড়ি ভাড়া দিয়েছিলেন। আজ তাদের সাথে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার কথা ছিল, বাড়ির মালিক কে পলাশ মিঞার পরিচয় জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন তাদের কোনো পরিচয় আমার জানা নেই। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমরা অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নিব।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায় অফিসের মধ্যে বিভিন্ন ব্যাংকের স্বাক্ষর বিহীন অনেক চেক রয়েছে, প্রশাসন ও সচেতন মহলের নিকট ভুক্তভোগীরা দাবি জানিয়েছেন – এ রকম ভুয়া প্রতিষ্ঠান যেন কোথাও আর প্রতিষ্ঠিত হয়ে গ্রামীণ সহজ-সরল খেটে খাওয়া মানুষকে আর প্রতারিত করতে না পারে।

আপনার মতামত লিখুন :