পটুয়াখালীতে ক্ষমতার বলে জমি দখলের অভিযোগ

প্রকাশিত : ৩১ আগস্ট ২০২০

পটুয়াখালী প্রতিনিধি : পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলার চান্দুপাড়া গ্রামে জে,এল নং-১৭, মৌজা চান্দুপাড়া,খেবট নং-৫০৪, সাবেক দাগ নং-৩৫১৫ জমির পরিমান ২৩.১১ এবং জমির পরিমান বৃদ্ধিমতে ২৫.৫২ একর। এই ২৫.৫২ একর জমির মধ্যে ১১.৩৫ এর জমির মালিক ওয়ারিশ সূত্রে মালিক মোসা. মমতাজ বেগম ও আ: সালাম হাওলাদার গং। উক্ত জমির মমতাজ বেগমের জমি সহ ১৪.৪২ একর জমি জ্বাল জালিয়াতি ও ক্ষমতার বলে ভোগ করার জন্য তানিয়া ও তার চাচাতো ভাই সৌরভ বিশ্বাস গং তাদের পূর্ববর্তী হালিমুননেছার নামে একটি জ্বাল দলিল সৃষ্টি করে। যার নং-৬৫৬, তারিখ-২৯.০৪.৪৬। এই জ্বাল দলিল বলে তানিয়া গং জমি জোর জুলুম করে ভোগ করার পায়তারা চালাতে থাকে। এ অবস্থায় তানিয়া ও সৌরভ বিশ্বাস গংদের জ্বাল দলিল বাতিল করার জন্য মমতাজ বেগম গং বাদী হয়ে ২৯.৩.২০১৭ তারিখ পটুয়াখালী সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-১৪০/১৭। উক্ত মামলাটিতে মমতাজ বেগম গণ ২২.৮.২০১৭ তারিখ রায় প্রাপ্ত হন এবং ০৪.০৩.২০১৯ তারিখ রেজিস্ট্রি অফিসে দলিল সংশোধন হয়। এবিষয়ে উপরোক্ত জমির ১১.৩৫ একর এর প্রকৃত মালিক মমতাজ বেগম গং অভিযোগে জানান, তানিয়া ঢাকায় থেকে ক্ষমতা ও টাকার বলে কলাপাড়ায় তার চাচাতো ভাই সৌরভ বিশ্বাস গংদের দিয়ে জমি দখলের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। সৌরভ তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে মমতাজ বেগমকে প্রায়ই প্রাণ নাশের হুমকি দেয় এবং জমিতে চাষাবাদ করলে ফসল কেটে নিয়ে যায়। এর মাঝে সংশ্লিষ্ট জমি দেখাশোনা করতে গেলে সৌরভ ও তার লোকজন মিলে মমতাজ বেগমকে টেনেহেচড়ে টোং ঘরে নিয়ে শ্লীতহানির চেষ্টা করে। তখন মমতাজ বেগমের ডাকচিৎকার শুনে তার দেবর ও স্থাণীয় লোকজন এসে পড়লে সৌরভ তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে চলে যায় এবং যাবার সময় মমতাজ বেগমকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যায়। এঘটনায় মমতাজ বেগম বাদী হয়ে পটুয়াখালী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- ৫৬০/২০১৯। পরবর্তীতে ক্রমাগত খুনজখমের ভয়ভীতি দেখালে মমতাজ বেগম পটুয়াখালী বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিষ্টেট আদালতে সৌরভ গংদের বিরুদ্ধে একটি ৭ধারা মামলা করেন। যার মামলা নং-এম.পি ৪০/২০২০। তার বিরুদ্ধে কলাপাড়া, পটুয়াখালী ও ঢাকাতে জানা অজানা একাধীক মামলা রয়েছে। তাই জমির প্রকৃত মালিক হয়েও এভাবে হয়রানি বন্ধের বিষয়ে আইনের কাছে এর সুবিচারের দাবী জানান মমতাজ বেগম গং। এবিষয়ে অভিনেত্রী তানিয়ার মুঠোফোনে বার বার (০১৮৪৪১৫০১৫০) কল দিলে তার নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়। সৌরভের সাথে কথা বললে তিনি জানান মমতাজ বেগম গংরা আমাদের দলিল বাতীলের যে মামলা করেছে তাতে যে রায় হয়েছে তার বিরুদ্ধে আমরা পটুয়াখালী জজ কোর্টে আপিল করলে বিজ্ঞ আদালত স্টে আদেশ দিয়েছেন। আর আমার বিরুদ্ধে যে মামলাগুলো কথা উল্লেখ করেছে তার খারিজ হয়ে গেছে।

আপনার মতামত লিখুন :