গভীর রাতে অনাহারীর বাড়িতে হাজির ইউএনও

প্রকাশিত : ৩ মে ২০২১

ঝালকাঠি প্রতিনিধি:

ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলার চেঁচরীরামপুর ইউনিয়নের বানাই গ্রামের শ্রমজীবী আ. রহমান মাল করোনায় কর্মহীন হয়ে অর্ধাহার-অনাহারে জীবনযাপন করছিলেন। না খেয়ে থাকলেও চক্ষুলজ্জায় কারও কাছে সাহায্যও চাইতে পারছিলেন না।

কিন্তু বিষয়টি জেনে যান উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সুফল চন্দ্র গোলদার। কাউকে কিছু না জানিয়ে তাকে সহায়তার প্রস্তুতি নেন ইউএনও। রোববার (২ মে) দিবাগত রাত ১২টার দিকে তিনি আ. রহমান মালের বাড়িতে গিয়ে হাজির হন। দরজায় কড়া নাড়া দিয়ে পরিচয় দিতেই ভয়ে আঁতকে ওঠেন রহমান।

দরজা খুলে ইউএনওকে দেখেন, তার সঙ্গে ছিল একটি খাদ্যদ্রব্যের বস্তাও। আতঙ্ক কেটে গিয়ে মুখে হাসি ফোটে আ. রহমানের। দেখতে পেলেন অফিসের কয়েকজন কর্মচারীকে সঙ্গে নিয়ে তার দরজায় সহায়তা নিয়ে হাজির ইউএনও। ইউএনওর দেয়া খাদ্য সহায়তার মধ্যে ছিল- চাল, ডাল, তেল, আলুসহ বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য।

এ বিষয়ে ইউএনও সুফল চন্দ্র গোলদার জানান, ডিসি স্যারের নির্দেশে ২ মে দিবাগত রাত ১২ টায় কৃষক রহমান মালের ঘরে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে এ খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হয়।

আবেগাপ্লুত কণ্ঠে আ. রহমান মাল বলেন, আমি না খেয়ে রয়েছি তাতে যে কষ্ট হয়েছে তার চেয়ে বেশি খুশি ও আনন্দিত হয়েছি ইউএনও স্যার আমার ঘরে এসে খাবার দিয়ে যাওয়ায়। শুনেছি স্যার অনেক ভালো মানুষ, আল্লাহ তাকে অনেক বড় করুক।

আপনার মতামত লিখুন :