মাদারীপুরের শিবচরে জ্বর সর্দি কাঁশি নিয়ে মালয়েশিয়া প্রবাসীর মৃত্যু

প্রকাশিত : ১৫ এপ্রিল ২০২০

মাদারীপুর প্রতিনিধি : জ্বর সর্দি কাঁশি নিয়ে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার পূর্ব সন্নাসীরচর এলাকায় এক মালয়েশিয়া প্রবাসী মারা গেছেন। মঙ্গলবার রাতে নিজ বাড়ীতে মারা যান। পরে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। তবে স্বাস্থ্য বিভাগ ওই ব্যক্তিকে হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন বলে দাবী করেন।
স্থানীয় এলাকাবাসী ও আত্মীয়-স্বজনরা জানান, গেলো ১২ থেকে ১৫ দিন আগে মালয়েশিয়া থেকে পালিয়ে নিজ বাড়ী শিবচর উপজেলার সন্নাসীরচর ইউনিয়নের পূর্ব সন্নাসীরচর এলাকায় আসেন ৪৭ বছর বয়সী সিরাজ কাজী। তারপর থেকে নিজেকে কিছুটা আত্ম-গোপন করেই ছিলেন। বিদেশ থেকে আসার পরেই জ্বর সর্দি কাঁশিতে ভুগছিলেন তিনি। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গুরুত্বর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে বাড়ীতেই মারা যান। পরে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু বলে ঘোষণা করেন। তবে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শশাঙ্ক চন্দ্র ঘোষ ওই ব্যক্তিকে হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছে বলে দাবী করেন। সিরাজ কাজী পূর্ব সন্নাসীরচর গ্রামের হাসেম কাজীর ছেলে। তার স্ত্রী ও তিন সন্তান রয়েছে।
এব্যাপারে স্থানীয় জসিম উদ্দিন জানান, ‘বেশ কিছু দিন ধরে জ্বর কাঁশিতে ভুগছিলেন সিরাজ কাজী। যেহেতু তিনি মালয়েশিয়া থেকে এসেছে, তার জন্যে অবশ্যই করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা উচিত ছিল। সেই সাথে ওই এলাকা প্রশাসনের নজরে রাখ উচিত।’
এব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শশাঙ্ক চন্দ্র ঘোষ বলেন, ‘ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে আনার আগেই মারা যায়। তার শারিরীক অবস্থার কথা শুনে মনে হচ্ছে তিনি হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছে। যে কারণে তার করোনার উপসর্গ না থাকায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়নি।’

 

আপনার মতামত লিখুন :