বরগুনায় প্রবাসীর স্ত্রী ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক আটক

প্রকাশিত : ৫ মে ২০২০

বরগুনা প্রতিনিধিঃ বরগুনায় প্রবাসীর স্ত্রী ধর্ষণের অভিযোগে সজিব নামের এক যুবক কে আটক করেছে বরগুনা থানা পুলিশ। সজিব বরগুনা সদর উপজেলার ১ নং বদরখালী ইউনিয়নের বাওয়ালকর গ্রামের হারুন মিয়ার ছেলে। সোমবার (০৪ মে) দুপুর ২টার দিকে একই ইউনিয়নের ডেমা গুলিশাখালী গ্রামের প্রবাসী সোহরাব হোসেনের স্ত্রী রানী বেগমের বাসায় ঢুকে জোর করে ধর্ষণ করে। রানী বেগম ডাকচিৎকার করলে স্থানীয়রা ডাকচিৎকার শুনে অভিযুক্ত  সজিব কে আটকে রেখে থানায় অভিযোগ জানায়। থানা থেকে পুলিশ এসে ধর্ষক সজিব কে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

ধর্ষণের শিকার প্রবাসীর স্ত্রী রানী বেগম সাংবাদিকদের জানান, সজিব আমাকে প্রায় সময় ফোনে বিরক্ত করতো। ঐ দিন আমার ছেলেমেয়ে নানা বাড়িতে গিয়েছিল। বাড়ি ফাঁকা পেয়ে ঘরে ঢুকে আমার মুখ চেপে ধরে আমাকে জোড় পূর্বক ধর্ষণ করে। আমি ডাকচিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা সজিবকে আটকে রেখে পুলিশ খবর দেয়। আমি দুই সন্তানের মা আমার স্বামী থাকে বিদেশে, আমি এই ঘটনার সঠিক বিচার চাই।

এব্যাপারে ১নং বদরখালী ইউপি চেয়ারম্যান শরীফ ইলিয়াস আহমেদ স্বপন সাংবাদিকদের জানান,ধর্ষণকারী যেই হউকনা কেন তাকে বিচারের আওতায় আনতে হবে।

এব্যাপারে বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আবির মোহাম্মদ হোসেন জানান, আমি ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে তাৎক্ষনিক পুলিশ পাঠিয়ে সজিব নামের একজনকে আটক করেছি। ঘটনার সত্যতা যাচাই করে সজিবের নামে থানায় ধর্ষণের মামলা নেওয়া হয়েছে এবং ভিক্টিমকে মেডিকেল রিপোর্টের জন্য বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :