বরিশালে হত্যাকারী ঘাতক মাকে ধরিয়ে দিলো শিশু

প্রকাশিত : ২ মে ২০২০

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধিবরিশাল সদর উপজেলার শায়েস্তাবাদ ইউনিয়নের কোদালিয়া গ্রামের ২৯এপ্রিল দুপুরে খেলার সাথি সাড়ে তিন বছরের শিশুকে হত্যা করে মজা পুকুরের কচুরিপানার নিচে লুকিয়ে রাখা ঘাতক মাকে ধরিয়ে দিয়েছে চার বছরের শিশু পুত্র   ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয় পুলিশ ঘাতক জাকিয়া বেগমকে গ্রেফতার করে শনিবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে

কাউনিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিমুল করিম জানান, নিহত হামিম কাউনিয়া থানা শায়েস্তাবাদ ইউনিয়নের কোদালিয়া গ্রামের ছালাম কবিরাজের পুত্র শনিবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করে নিহত শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে ওসি আরও জানান, ঘটনায় নিহতের দাদা আলতাফ কবিরাজ বাদি হয়ে জাকিয়া বেগমকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন সেই মামলায় জাকিয়াকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করা হয় আদালতের নির্দেশে গ্রেফতারকৃতকে কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে

নিহতের চাচা আবুল বাশার জানান, ২৯এপ্রিল দুপুর একটার পর থেকে তার ভাইয়ের ছেলে হামিমের কোন সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিলো না অনেক খোঁজাখুজি করেও তার কোন সন্ধান না পেয়ে নিখোঁজ হামিমের খেলার সাথী পার্শবর্তী বাড়ির এনায়েত হোসেন জাকিয়া বেগম দম্পতির চার বছরের শিশু পুত্রকে জিজ্ঞাসা করা হয় সে আদো আদো কন্ঠে জানায়, হামিমকে তার মা মারধর করে বাড়ির পাশের একটি পুকুরে চুবিয়ে অন্য একটি পুকুরের কচুরিপানার নিচে লুকিয়ে রেখেছে ওই শিশুর দেয়া তথ্যানুযায়ী সেই মজা পুকুরে সন্ধান চালিয়ে হামিমের মরদেহ উদ্ধার করা হয়

নিহত হামিমের ফুফু শিউলী বেগম জানান, জাকিয়া বেগমের শিশু পুত্র তার ছোট ভাই ছালামের সন্তান হামিমের সাথে খেলা করতে প্রায়ই বাড়িতে আসতো এজন্য জাকিয়া বেগম তার শিশু পুত্রকে রাগারাগি করতো

আপনার মতামত লিখুন :