ভোলার তজুমদ্দিনে মামা কতৃক সম্পত্তি আত্বসাতের অভিযোগ

প্রকাশিত : ১ সেপ্টেম্বর ২০২০

তজুমদ্দিন (ভোলা) প্রতিনিধি : ভোলার তজুমদ্দিনে মো. করিম নামক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে নাবালক ভাগ্নেদের পাঁচলক্ষ টাকার সম্পত্তি আত্বসাৎ করার অভিযোগ করেন তার বোন শাহিদা বেগম। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চার বছর আগে শাহিদার স্বামী ক্যান্সারে মারা গেলে তার রেখে যাওয়া নগদ চার লাখ পঁয়ত্রিশ হাজার টাকা, স্বর্নালঙ্কার ও দুইটি গরু আত্বসাৎ করে সুদের কারবারি করিম। শাহিদার স্বামী মারা যাওয়ার পর নাবালক সন্তানদের নিয়ে বাবার বাড়ি আসলে করিম ও তার মায়ের যুক্তিতে শাহিদা উক্ত সম্পত্তি এই শর্তে করিমের কাছে রাখেন যে প্রতি মাসে ব্যবসার লাভের অংশ হতে কিছু অংশ শাহিদাকে তার নাবালক এতিম সন্তানদের ভরনপোষণের জন্য দিয়ে যাবেন এবং পরবর্তীতে সম্পূর্ণ টাকার প্রয়োজন হলে এককালীন ফেরত দিবে। কিন্তু কয়েক মাস লভ্যাংশ দিয়ে ভূয়া পরিশোধ খাতা দেখিয়ে উক্ত চার লক্ষ পঁয়ত্রিশ হাজার টাকা, দুটি গরু ও স্বর্নালঙ্কার ফেরত দিতে অস্বীকার করে করিম। শাহিদা ও করিমের বাবা ও বড় ভাই জাহাঙ্গীরও করিম কতৃক উক্ত সম্পত্তি আত্বসাতের অভিযোগ করেন। তবে করিম এসব অভিযোগ অস্বীকার করে। এলাকাবাসী জানান, স্টেশনারি দোকানের ব্যবসার পাশাপাশি অবৈধ সুদের কারবার আছে করিমের। স্থানীয় কয়েকজনের কাছে উচ্চ সুদে শাহিদার স্বামীর আত্বসাতকৃত টাকা খাটায় করিম। এছাড়া একটির জায়গায় চারটি ভিন্ন ধরনের দোকান দিয়ে ব্যবসা কয়েকগুণ বর্ধিত করে সে। মাছের ঘের ও রাতারাতি মোটরসাইকেলের মালিকও হয়ে যায় একসময়ের ক্ষুদ্র চায়ের দোকানি করিম। অপরদিকে দুটি নাবালক সন্তান নিয়ে অসহায় জীবন যাপন করা শাহিদা প্রভাবশালীদের চাপে ন্যয্য পাওনা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন বলে দাবি করেন। তার এতিম নাবালক সন্তানদের আত্বসাৎকৃত সম্পত্তি উদ্ধারে সন্মানিত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পুলিশ প্রশাসনসহ মাননীয় এমপি মহোদয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

আপনার মতামত লিখুন :