সরকারের ইচ্ছে নেই খালেদা জিয়া বেঁচে থাকুক : ফখরুল

প্রকাশিত : ২৪ নভেম্বর ২০২১

ভোরের দর্পণ ডেস্ক:

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে দেশের জন্য যে অবদান তা অন্য কোনো রাজনৈতিক দলের নেতার নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি আর বলেন, ‘সেই নেত্রীর বিরুদ্ধে মামলায় সাজা দিয়ে তিন বছর তাকে কোনো চিকিৎসা না দিয়ে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হয়েছে।’

আজ বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের এক যৌথসভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘চিকিৎসকরা বলছেন, তার বিদেশে উন্নত চিকিৎসা খুবই প্রয়োজন। কিন্তু সরকার সেই চিকিৎসা থেকে তাকে বঞ্চিত করছে। বিদেশে উন্নত চিকিৎসা নিতে আইনে কোনো বাধা নেই। এ মুহূর্তে সরকার তাকে বিদেশে পাঠাতে পারে-এটা সরকারের এখতিয়ার। এজন্য সমোস্ত দায় সরকারের।’

শুধুমাত্র দেশের গণতন্ত্র ধ্বংস, বিরাজনীতিকরণের উদ্দেশ্যেই খালেদা জিয়াকে সরকার বিদেশে চিকিৎসা সুযোগ দিচ্ছে না বলে মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, ‘দেশের মানুষ বিশ্বাস করে সরকার ইচ্ছে নেই খালেদা জিয়া বেঁচে থাকুক। এ কারণেই তাকে বিদেশে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে না।’

বিএনপির জ্যেষ্ঠ এই নেতা বলেন, ‘একটা ফ্যাসিস্ট সরকারের অধীনে সীমিত পরিসরের মধ্যে গণতান্ত্রিকভাবে যত আন্দোলন করা প্রয়োজন আমরা শুরু করেছি। আমরা বিশ্বাস করি জনগণের অংশগ্রহণের মধ্যদিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করব ও বিদেশে উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করব এবং একই সঙ্গে গণতন্ত্রকেও আমরা মুক্ত করব।’

আপনার মতামত লিখুন :