জনগণকে মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত করছে সরকার : প্রিন্স

প্রকাশিত : ৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

দেশ যেন এক মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স। তিনি বলেন, কর্তৃত্ববাদী সরকার যখন ইচ্ছে তখন নিরপরাধ মানুষকে বেআইনিভাবে তুলে নিয়ে যাচ্ছে। দীর্ঘ সময় গোপন রেখে আষাঢ়ে গল্প বানিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে মিথ্যাচার করা যেন সরকারের রুটিন ওয়ার্কে পরিণত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন এসব কথা বলেন তিনি।

প্রিন্স বলেন, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ও ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি রাজীব আহসান, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আব্দুর রহিম হাওলাদার সেতু, বরিশাল দক্ষিণ জেলা যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক এস এম আশরাফুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম রাহুলসহ পাঁচজনকে গত বুধবার রাত ১১টার দিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা রাজধানীর রাইফেলস স্কয়ারের সামনে থেকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর দীর্ঘ সময় গোপন রেখে ধানমন্ডি থানায় তাদের হস্তান্তর করা হয়। বিএনপি অবিলম্বে রাজিব আহসানসহ গ্রেফতার সব নেতাকর্মীর মুক্তি দাবি করছে।

বিএনপির এ নেতা আরও বলেন, সরকার নিজেদের ব্যর্থতা আড়াল করতে এবং আন্দোলন ও পতনের ভয়ে বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের নতুন করে গ্রেফতার ও হয়রানি শুরু করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েলসহ দেশব্যাপী নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে।

‘জনবিচ্ছিন্ন কর্তৃত্ববাদী ভোটারবিহীন’ সরকারের অবস্থা সন্ত্রাসীদের মতো বলে অভিযোগ করে প্রিন্স বলেন, এই অবৈধ সরকার গুম, খুন, অপহরণ, ধর্ষণ, সন্ত্রাস চালিয়ে রাষ্ট্রে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টির মাধ্যমে জনগণকে স্তব্ধ করার চেষ্টা করছে। এ জন্য তারা আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে প্রাইভেট বাহিনীতে পরিণত করে রাজনীতিকে নিয়ন্ত্রিত করছে।

আপনার মতামত লিখুন :