হঠাৎ’ খালেদার সঙ্গে দিলারা চৌধুরীর সাক্ষাৎ, যা বললেন মিডিয়ায়

প্রকাশিত : ৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

ভোরের দর্পণ ডেস্কঃ

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের সাবেক প্রধান ড. দিলারা চৌধুরী। শনিবার রাতে খালেদা জিয়ার বাসভবনে গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করেন দিলারা।

জামায়াত থেকে বাদ পড়া এবং জামায়াত মনোভাবাপন্নদের নতুন প্লাটফর্ম হিসেবে ২০১৯ সালের এপ্রিলে সামনে আসা ‘জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশে’র আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এই দিলারা চৌধুরী। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশের একটি কর্মশালাতে বক্তব্যও রাখেন দিলারা।

তবে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে এসে তিনি বলেছেন, আমি তো রাজনীতি করি না, ফলে তার সঙ্গে রাজনৈতিক বিষয়ে কী আলাপ করবো। খালেদা জিয়ার সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত সম্পর্ক, তার সঙ্গে আমি রাজনৈতিক কোনো বিষয়ে কথা বলতে যাইনি। দীর্ঘদিন জেলে ছিলেন, তার শারীরিক অবস্থা কেমন- সেটা দেখতে গিয়েছিলাম।

রোববার সকালে ড. দিলারা চৌধুরী বলেন, আমি এবং আমার স্বামী (গোলাম ওয়াহেদ চৌধুরী) জেনারেল জিয়াউর রহমানকে বহুদিন ধরে চিনতাম। বেগম খালেদা জিয়াও সব সময় আমার সঙ্গে সৌজন্যমূলক ব্যবহার করেছেন। তিনি যেহেতু দীর্ঘদিন কারাগারে ছিলেন, এখনও তো এক প্রকার বন্দি অবস্থায় আছেন। এর আগেও আমি মির্জা ফখরুল ইসলামকে (বিএনপির মহাসচিব) বলেছিলাম যে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে চায়। তখন তিনি আমাকে বলেছিলেন ম্যাডাম অসুস্থ। এবার আমি তাকে (মির্জা ফখরুলকে) বললাম যে, অনেক দিনের জন্য দেশের বাইরে যাবো, তার আগে একটু দেখা করবো খালেদা জিয়ার সঙ্গে। এই জন্যই তিনি সাক্ষাতের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন।

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা কেমন- জানতে চাইলে ড. দিলারা বলেন, উনি মানসিকভাবে খুব শক্ত আছেন এবং ব্রেইন খুব শার্প আছে। কিন্তু উনার চলাফেরার খুব কষ্ট হচ্ছে। উনি বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা করিয়ে আসতে পারলে খুব স্বস্তি পেতেন। উনার চলাফেরার খুব ব্যথা হয়। উনার পায়ে খুব ব্যথা হয়। এছাড়া জেলে থাকতে কিডনি, লিভারসহ আরও অনেক কিছুর সমস্যা হয়েছিল।

খালেদা জিয়ার নিয়মিত ঘুম হয় না বলে উল্লেখ করে ড. দিলারা চৌধুরী বলেন, আমি তাকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম, ঠিক মতো ঘুম হয় কি না। তখন তিনি আমাকে বললেন- কোনো দিন হয়, কোনো দিন হয় না। আসলে উনার ঠিক মতো ঘুম হয় না। এমনিতে ভালো আছেন বলে তিনি আমাকে জানিয়েছেন। তবে চলাফেরার কষ্ট হয়।

দেশের রাজনীতি নিয়ে কোনো আলাপ না হলেও আন্তর্জাতিক রাজনীতি নিয়ে তাদের মধ্যে আলাপ হয়েছে বলে উল্লেখ করেন ড. দিলারা। তিনি বলেন, আমরা আন্তর্জাতিক রাজনীতি নিয়ে আলোচনা করেছি। আফগানিস্তান নিয়ে তিনি খুব ভালো অ্যানালাইসিস করেছেন। এর বাইরে কোনো রাজনৈতিক আলোচনা হয়নি।

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার উন্নতি নেই
খালেদা জিয়ার কিডনি, লিভার, ডায়াবেটিসের কোনো উন্নতি নেই। অবস্থা আগের মতোই আছে বলে জানিয়েছেন তার একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুস সাত্তার। তিনি বলেন, ম্যাডামের অবস্থা ভালো না। তিনি আগের মতোই আছেন। তার রোগগুলোর কোনো উন্নতি নেই।

আব্দুস সাত্তার বলেন, ম্যাডামের চিকিৎসকরা নিয়মিতই তাকে দেখতে যান। আমরা কয়েক দিন পর পর তাকে দেখতে যাই।

জানা গেছে, খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ড. জাহিদ হোসেন প্রতিদিন দুইবার করে শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে আসেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর।

আপনার মতামত লিখুন :