ঢাকা-৫ আসনে সালাহউদ্দিন ও নওগাঁ-৬ আসনে রেজাউল বিএনপির প্রার্থী

প্রকাশিত : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

ভোরের দর্পণ ডেস্ক:

ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করেছে বিএনপি। ঢাকা-৫ আসনে সাবেক এমপি সালাউদ্দিন আহম্মেদ ও নওগাঁ-৬ আসনে শেখ মুহাম্মদ রেজাউল করিমকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছে দলটির সংসদীয় কমিটি।

রবিবার সন্ধ্যায় বিএনপির চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান এ তথ্য জানিয়েছেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-৫ এ নবীউল্লাহ নবী ও নওগাঁ-৬ আসনে আলমগীর কবির প্রার্থী ছিলেন। ঢাকা-৫ আসনে নবীউল্লাহ নবী, সালাহ উদ্দিন আহম্মেদ, সেলিম ভূঁইয়া, আকবর হোসেন নান্টু, জুম্মন মিয়া, আনোয়ার হোসেন সরদার মনোনয়ন ফরম কিনেছিলেন। শনিবার আগ্রহীদের সাক্ষাৎকার গ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার একদিন পর এই দুই আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থী চূড়ান্ত করলো বিএনপি।

 

সাক্ষাৎকার গ্রহণের সময় উপনির্বাচনে দলের প্রার্থী হওয়াকে কেন্দ্র করে বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশান কার্যালয়ের সামনে ঢাকা-১৮ আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী কফিল উদ্দিন ও এস এম জাহাঙ্গীর হোসেনের সমর্থকদের মাঝে মারামারি ও ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয় বেশ কয়েকজন। ঢাকা-১৮ আসনের দুই প্রার্থীর সমর্থকদের উত্তেজনা নিয়ে গুলশান কার্যালয়ের ভেতরেই প্রতিবাদ জানায় কফিলউদ্দিন আহমেদ। এ সময় দোতলায় অন্য আসনের প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার চলছিল। তবে এস এম জাহাঙ্গীর নিশ্চুপ ছিলেন।

 

কফিলউদ্দিন আহমেদের দাবি, তার নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে, কয়েকজন আহতও হয়েছে। এস এম জাহাঙ্গীর বলেছেন, তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের বিচার করা হবে।

নির্বাচন কমিশন জানায়, আগামী ১৭ অক্টোবর ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ শূন্য আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা-১৮ আসনে এখনো তফসিল হয়নি। এর আগে, ৬ মে ঢাকা-৫ আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে এ নির্বাচনী আসনটি খালি হয়। গত ২৭ জুলাই নওগাঁ-৬ আসনে আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলম করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করায় আসনটি ওইদিন শূন্য হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :