করোনা হাসপাতালে এখনো ১৯৬ আইসিইউ বেড খালি!

প্রকাশিত : ২৬ জুন ২০২০

করোনায় গুরুতর অসুস্থদের চিকিৎসার জন্য ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ) বেডের জন্য রোগীর স্বজনদের হন্যে হয়ে ঘোরার খবর নতুন নয়। আইসিইউতে জায়গা না পেয়ে অনেক রোগী মারা যাচ্ছে বলে গণমাধ্যমে খবর এসেছে। অনেক হাসপাতালের চিকিৎসকরাও একথা জানিয়েছেন। কিন্তু স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দাবি, করোনা চিকিৎসার জন্য নির্ধারিত হাসপাতালগুলোতে এখনো ১৯৬টি আইসিইউ বেড ফাঁকা পড়ে আছে। আর হাসপাতালগুলোতে সাধারণ শয্যা ফাঁকা রয়েছে নয় হাজার ৯১৯টি।

শুক্রবার দুপুরে নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, সারাদেশে করোনা চিকিৎসার জন্য নির্ধারিত হাসপাতালে সাধারণ বেড ১৪ হাজার ৬১০টি এবং নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) ৩৭৯টি। এর মধ্যে সাধারণ শয্যায় করোনা রোগী ভর্তি আছেন চার হাজার ৬৯১ জন এবং ফাঁকা রয়েছে ৯৯১৯টি। এদিকে আইসিইউতে ভর্তি আছেন ১৮৩ জন এবং আইসিইউ বেড খালি রয়েছে ১৯৬টি।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এই শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, ‘ঢাকা মহানগরীতে করোনার জন্য হাসপাতাল আছে ১৬টি এবং ঢাকা জেলায় একটি। ঢাকা মহানগরীতে করোনা রোগীদের জন্য সাধারণ শয্যা সংখ্যা ছয় হাজার ৭৭৩টি এবং আইসিইউ শয্যা ১৮০টি। সাধারণ শয্যায় ভর্তি আছেন দুই হাজার ৩৭৫ জন এবং আইসিইউতে ভর্তি আছেন ৯৭ জন করোনা রোগী।’

নাসিমা সুলতানা আরও বলেন, ‘করোনার জন্য নির্ধারিত সব হাসপাতালেই রোগী ভর্তি হতে পারবেন। কারণ অনেক শয্যা খালি আছে। সব হাসপাতালে অক্সিজেন সিলিন্ডার আছে মোট ১০ হাজার ২৪০টি, হাই ফ্লো নেজাল ক্যানেলা ৮০টি এবং অক্সিজেন কনসেনট্রেটর ৫৫টি।’

শুক্রবার পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক হাজার ৬৬১ জন। মোট শনাক্ত হয়েছেন এক লাখ ৩০ হাজার ৪৭৪ জন।

আপনার মতামত লিখুন :